গুচ্ছ পরীক্ষার ওএমআর দেখতে পারবেন ভর্তিচ্ছুরা

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের খাতা চ্যালেঞ্জের ফল প্রকাশিত হয়েছে। একই সাথে বৃত্ত ভরাট সংক্রান্ত ভুল হওয়া ওএমআর শিটের বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে কারো ফলই পরিবর্তন হয়নি। এমনকি বৃত্ত ভরাট সংক্রান্ত ভুলেরও সমাধান হয়নি।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) পুনর্নিরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়। ফল প্রকাশের পরপরই আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে এসএমএস এর মাধ্যমে তা জানিয়ে দেওয়া হয়।

জানা গেছে, ফল পুনর্নিরীক্ষা ও বৃত্ত ভরাটের জন্য মোট আবেদনের করেছিলেন এক হাজার ১৬৩ জন। এর মধ্যে এ ইউনিটে ৬৮৬ জন, বি ইউনিটে ২৪৫ জন এবং সি ইউনিটে ২৩২ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। আবেদনের জন্য ভর্তিচ্ছুদের দুই হাজার টাকা পরিশোধ করতে হয়েছিল। তবে আবেদকৃতদের কারোই ফল পরিবর্তন হয়নি।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, বৃত্ত ভরাটের কারণে বাতিল হওয়া ওএমআরগুলো চার কারণে দেখা হয়নি। এর মধ্যে প্রথমটি হলো- কোনো শিক্ষার্থী ওএমআর শিটে সেট কোড না লিখলে সেই ওএমআর দেখা হয়নি। দ্বিতীয়ত কেউ যদি সেট কোড একবার লিখে পরবর্তীতে সেটি কেটে অন্য আরেকটি সেট কোড পূরণ করে তাহলে সেটিও দেখা হয়নি। তৃতীয়ত ওএমআর শিটের রোল নম্বর, সেট কোড অথবা কোনো কিছু ঘষামাজা করলে সেই ওএমআরও দেখা হয়নি। শেষ কারণ হিসেবে তারা জানিয়েছেন কোনো শিক্ষার্থী ওএমআর শিটে তার রোল নম্বর না লিখলে সেই ওএমআরও দেখা হয়নি।

এদিকে ফল চ্যালেঞ্জ ও বৃত্ত ভরাট সংক্রান্ত ভুলের জন্য আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের ওএমআর শিট দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আয়োজক কমিটি। এজন্য ইমেইলের মাধ্যমে একটি আবেদন করতে হবে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গুচ্ছ কমিটির এক সদস্য বলেন, আগামীকাল সোমাবার (১২ সেপ্টেম্বর) ওএমআর দেখার আবেদন শুরু হবে। আবেদন করা যাবে বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। ওএমআর শিট দেখার জন্য uzzal@cse.jnu.ac.bd মেইল ঠিকানায় আবেদন করতে হবে। ফিরতি ইমেইলে ওএমআর শিট দেখানোর দিনক্ষণ জানিয়ে দেয়া হবে। আবেদপত্র অবশ্যই টেকনিক্যাল কমিটির কনভেনার বরাবর করতে হবে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এসে ওএমআর শিট দেখতে হবে।

জানা গেছে, রোল এরর এবং সেট/সাবজেক্ট কোড এররের কারণে ‘ক’ ইউনিটের ১ হাজার ৫৫১ জনের, ‘বি’ ইউনিটে ৪৮ জনের এবং গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটে ৩৬ জনের খাতা বাতিল করা হয়।

এর আগে, ৩০ জুলাই দেশের ১৯ কেন্দ্রের ৫৭টি ভেন্যুতে একযোগে গুচ্ছের ‘ক’ ইউনিটের, ১৩ আগস্ট মানবিক অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের এবং ২০ আগস্ট বাণিজ্য অনুষদভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

গুচ্ছের এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ‘ক’ ইউনিটে ৮৫ হাজার ৫৮২ জন, ‘বি’ ইউনিটে ৪৮ হাজার ১০৬ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে ২৩ হাজার ২২৮ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পাস করেছেন।