The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪

গুচ্ছে জবি থাকবে কি থাকবে না নির্ধারণ করবেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

আমি নতুন উপাচার্যের দায়িত্ব নিয়েছি, সে অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষার দায়িত্ব পালন করছি। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছে থাকবে কি থাকবে না সেটা আমার সিনিয়র শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের ওপর নির্ভর করবে যে তারা কি চান।

শুক্রবার (৩ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি প্রক্রিয়ার ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম এসব কথা বলেন।

এসময় উপাচার্য বলেন, গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা তুলে ধরবে গণমাধ্যম, এই আশা আমি করি। এছাড়াও গুচ্ছের ভালো দিক ও খারাপ দিকগুলোও যেন স্পষ্টভাবে গণমাধ্যমে উঠে আসে সে বিষয়ে নজর দিতে বলেন তিনি।

গুচ্ছ প্রক্রিয়ায় একের পর এক মেধাতালিকা প্রকাশ করার বিষয়ে ড. সাদেকা হালিম বলেন, এবার তো প্রায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ। আশা করি, এবার বেশি মেধাতালিকা প্রকাশের প্রয়োজন হবে না। যারা সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পড়তে ইচ্ছুক তারাই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে।

জবি শিক্ষকের বিচার চাইলেন একই বিভাগের শিক্ষকরা
ফেসবুকে জবির ডিনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার, বিচার চেয়ে ভিসির দ্বারস্থ

উল্লেখ্য, এবার ৬ হাজার আসনের বিপরীতে ‘বি’ ইউনিটে মোট আবেদন পড়েছে মোট ৯৪ হাজার ৯৩১ পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে পরীক্ষা দিয়েছে ১৯ হাজার ৭৭৩ জন পরীক্ষার্থী।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.