The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪

গবিসাসে বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হল দশম বর্ষপূর্তি

গবি প্রতিনিধি: বর্ণিল আয়োজনে বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সংগঠন ‘গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি’র (গবিসাস) ১০ম বর্ষপূর্তি উৎযাপিত হয়েছে।

সোমবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে বেলুন উড্ডয়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. মোঃ এনামুর রহমান এমপি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন। পরে ট্রান্সপোর্ট চত্বর থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থান ঘুরে গবিসাসের কার্যালয়ে র‍্যালি শেষ হয়।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথমেই ছিল আলোচনা সভা। প্রধান অতিথি প্রতিমন্ত্রী ডাঃ মোঃ এনামুর রহমান বলেন, “একটি গণতান্ত্রিক দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সাংবাদিকতা একটা গুরুত্বপূর্ণ পেশা। সাংবাদিকরা না থাকলে আমরা অন্ধকার জগতে বাস করতাম। সরকারের পক্ষে সবকিছু তথ্য সংগ্রহ করা কখনোই সম্ভব নয়। সাংবাদিকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সংবাদ সংগ্রহ করে থাকে এবং সেই সংবাদের উপর ভিত্তি করে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে।”

মাননীয় প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, “গবিসাস পজিটিভ নিউজ করে যা আমাদের সরকার চায়। আশাকরি ভবিষ্যতে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধের এবং বাংলাদেশের চেতনায় উপর ভিত্তি করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সংবাদ পরিবেশন করবেন। জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ, মাদক ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে সোচ্চার থাকবেন।”

মাননীয় প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়ষী প্রশংসা করে বলেন, “২০৪১ সালে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত সুখী সমৃদ্ধি, উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নের জন্য সাংবাদিকদের প্রয়োজন। সাংবাদিকরাই আমাদের পৃষ্ঠপোষকতা করবে। সরকারের ভালো কাজ ও ভুলত্রুটি সমালোচনা করবেন ও দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আপনাদের কোনো সাজেশন থাকলে তা আমাদের নির্ভয়ে বলবেন। আমরা সাদরে আপনাদের সাজেশন গ্রহণ করবো ও দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো।”

বিশেষ অতিথি উপাচার্য আবুল হোসেন বলেন, “গবিসাস প্রথম থেকেই সৃজনশীল ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি সমুন্নত রেখেছে। আশাকরি এই ধারা অব্যাহত থাকবে। ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সংশ্লিষ্টদের সবার উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করছি।”

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, রেজিস্ট্রার এস. তাসাদ্দেক আহমেদ, এসিআই এনিমেল হেলথের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মোঃ শাহিন শাহ, গবিসাসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আসিফ আল আজাদ, বিভিন্ন অনুষদের শিক্ষক, সাংবাদিক সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দরা।

ক্যাম্পাস সাংবাদিকতায় বর্ষসেরা চার সাংবাদিককে স্মারক প্রদান করা হয়। এতে বর্ষসেরা ফিচার লেখক মোঃ রাকিবুল হাসান ও সানজিদা জান্নাত পিংকি এবং বর্ষসেরা রিপোর্টার তানভীর আহমেদ ও বরাতুজ্জামান নির্বাচিত হয়েছেন। ১০ম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে গবিসাসের সাবেক নেতৃবৃন্দের প্রদান করা হয় সম্মাননা স্মারক।

গবিসাসের সাবেক সহ-সভাপতি সুপর্ণা রহমান টুছি এবং সাধারণ সম্পাদক হাসিব মীরের সঞ্চালনায় গবিসাসের প্রথম প্রকাশনা ‘১০ পেরিয়ে!’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়৷ সভার সভাপতিত্ব করে গবিসাস সভাপতি মোঃ বরাতুজ্জামান স্পন্দন।

সন্ধ্যায় দেশের গালি বয় খ্যাত রানা ও তাবিব মাহমুদ পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। এ ছাড়াও গণ বিশ্ববিদ্যালয় মিউজিক কমিউনিটি ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা নাচ-গানের মাধ্যমে দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন।

এই আয়োজনে সহযোগিতা করেছেন পাঞ্জেরী প্রকাশনী ও বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র এবং মিডিয়া পার্টনার আজকের পত্রিকা ও রাইজিংবিডি।

উল্লেখ্য, গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (গবিসাস) দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে প্রথম সাংবাদিক সমিতি। ২০১৩ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি আইন বিভাগের শিক্ষার্থী আসিফ আল আজাদের নেতৃত্বে ৮ জন সদস্য নিয়ে গবিসাসের পথচলা শুরু হয়।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.