The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪

গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভেটেরিনারি বিভাগে ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

গবি প্রতিনিধি: সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে (গবি) ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস অনুষদের ১৫তম ব্যাচের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার (২২ জানুয়ারি) ২০৪ নম্বর রুমে এ আয়োজন সম্পন্ন হয়।

আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন অনুষদীয় ডিন অধ্যাপক ডা. জহিরুল ইসলাম খান। এতে নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন অত্র অনুষদের এনিমেল প্রোডাকশন বিভাগের প্রধান ডা: মো. আব্দুর রহমান এবং প্রি-ক্লিনিকাল এর বিভাগীয় প্রধান ডা. সজীবুল হাসান।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. জহিরুল ইসলাম খান, ‘বর্তমান সময়ে ভেটেরিনারি পেশা অত্যন্ত চাহিদাপূর্ণ। দেশে প্রায় ১৪ হাজারের বেশি ডেইরি ফার্ম রয়েছে, এছাড়াও অগণিত পোল্ট্রি ফার্ম রয়েছে। তোমরা সৌভাগ্যবান এ বিষয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ পেয়েছো। আশা করি, দক্ষ ভেটেরিনারি গ্র্যাজুয়েট হয়ে দেশের সেবায় তোমরা আত্মনিয়োগ করবে।’

এছাড়া গবিতে এ অনুষদ চালু এবং সার্বিক সহযোগিতার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ভিসি, রেজিস্ট্রারসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তাবৃন্দ এবং অনুষদের সাবেক ডিনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তিনি।

নবীনদের উদ্দেশ্যে ডা. আব্দুর রহমান বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানের নিয়ম-শৃঙ্খলার প্রতি তোমরা আন্তরিক হবে। তোমাদের সামনে উজ্জ্বল ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে। পড়ালেখায় কঠোর মনোনিবেশ করে এ সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। আমরা তোমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত আছি।’

নবাগত শিক্ষার্থী সিয়াম বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আমার বাসার পাশে ভেটেরিনারি হাসপাতাল দেখে আসছি। মানুষের হাসপাতালের পাশাপাশি ভেটেরিনারি হাসপাতাল আছে দেখে খুবই অবাক হয়েছি। এরপরেই এই সাবজেক্ট সম্পর্কে জানতে পারলাম। গণ বিশ্ববিদ্যালয় ভেটেরিনারি খুবই উন্নতমানের শিক্ষা প্রদান করে থাকে তাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পেরে গর্বিত বোধ করছি।’

আরেক নতুন শিক্ষার্থী অর্পা বলেন, ‘এখানে ভর্তি হতে পেরে খুবই ভালো লাগছে। প্রাণীদের প্রতি আগের থেকেই ভালোবাসা ছিলো, এই সাবজেক্টে ভর্তি হতে পেরে আরো ভালো লাগছে কারণ তাদের চিকিৎসা সেবা আমি দিতে পারবো।’

অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে ভেটেরিনারিয়ানদের ভবিষ্যত সম্ভাবনা সম্পর্কে আলোকপাত ও অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অনুষদের এনিমেল নিউট্রিশনের প্রভাষক ডা. মো. রুকনুজ্জামান। পরে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ল্যাব, ডেইরি ফার্ম, গোট ফার্ম, পোল্ট্রি ফার্ম ও ভেটেরিনারি টিচিং হাসপাতাল ঘুরে দেখানো হয়।

প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী এ আয়োজনে অনুষদের অন্যান্য শিক্ষক ও নবীন শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, দেশের প্রথম ও একমাত্র বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে ২০১৬ সালের মে মাসে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস অনুষদের যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে এখানে তিন শতাধিক এর বেশি শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে। ১৪জন শিক্ষকের আন্তরিক প্রচেষ্টায় অত্যন্ত সুন্দরভাবে এগিয়ে চলেছে অনুষদের শিক্ষা কার্যক্রম।

উল্লেখ্য, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন সেমিস্টারের (জানুয়ারি) ক্লাস আরম্ভ হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে গবির বিভাগগুলো।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.