The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩

গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়া নিয়ে যা বলছে গুচ্ছ কমিটি

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় গণিত অংশের উত্তর না করেও ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া না পাওয়া নিয়ে ভর্তিচ্ছুদের মনে নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে মূল বিষয় কোনো ভাবেই বাদ দেওয়া যাবে না বলা হলেও ওএমআর শিটে তেমন কোনো নির্দেশনা ছিল না। ভর্তিচ্ছুরা মূল বিষয় বাদে চতুর্থ বিষয় এবং বাংলা অথবা ইংরেজি বিষয়ের উত্তর করতে পেরেছেন। এই অবস্থায় যারা গণিত বিষয়ে উত্তর করেনি তারা ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া না পাওয়া নিয়ে দুইভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন।

শিক্ষার্থীদের একটি পক্ষ মনে করেন, দেশের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় গণিত বিষয়ের উত্তর না করলে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়ার সুযোগ নেই। তবে গত শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ কমিটি এই নিয়মের ব্যাত্যয় ঘটিয়েছে। যদিও ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গণিতের সমকক্ষ হিসেবে আইসিটি বিষয় ধরা হয়েছিল। এছাড়া বাংলা এবং ইংরেজি বিষয়ে উত্তর করা বাধ্যতামূলক ছিল। তবে এবছর আইসিটি ছিল না। এছাড়া বাংলা এবং ইংরেজি অপশনাল ছিল। ফলে গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পেলে শিক্ষার্থীদের বড় একটি অংশ বঞ্চিত হবে।

অরেকটি পক্ষ মনে করেন, এইচএসসিতে বিজ্ঞানের সকল শিক্ষার্থীই গণিত পড়েছে। সেখানে ভর্তি পরীক্ষায় কে গণিতের উত্তর করলো আর কে করলো না সেটি মূখ্য বিষয় হতে পারে না। ভর্তি পরীক্ষা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা। এখানে প্রাপ্ত নম্বর মূল বিষয় হওয়া দরকার। কে গণিতের উত্তর করলো আর কে জীববিজ্ঞান বিষয়ের উত্তর করলো সেটি দেখা উচিত নয়।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কমিটি এবং মূল কমিটির সদস্যদের সাথে। তারা বলছেন, বিষয়টি নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শিগগিরই তারা এ বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গুচ্ছের মূল কমিটির আহবায়ক এবং শাহাজাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বলেন, গত শিক্ষাবর্ষে কি হয়েছে সেটি নিয়ে আমরা ভাবতে চাই। এ বছর গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া যাবে কিনা সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

তিনি আরও বলেন, আগামী ২০ আগস্ট আমাদের ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এই ইউনিটের পরীক্ষা শেষে এ বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়া নিয়ে যা বলছে গুচ্ছ কমিটি

গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়া নিয়ে যা বলছে গুচ্ছ কমিটি

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় গণিত অংশের উত্তর না করেও ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া না পাওয়া নিয়ে ভর্তিচ্ছুদের মনে নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে মূল বিষয় কোনো ভাবেই বাদ দেওয়া যাবে না বলা হলেও ওএমআর শিটে তেমন কোনো নির্দেশনা ছিল না। ভর্তিচ্ছুরা মূল বিষয় বাদে চতুর্থ বিষয় এবং বাংলা অথবা ইংরেজি বিষয়ের উত্তর করতে পেরেছেন। এই অবস্থায় যারা গণিত বিষয়ে উত্তর করেনি তারা ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া না পাওয়া নিয়ে দুইভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন।

শিক্ষার্থীদের একটি পক্ষ মনে করেন, দেশের প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় গণিত বিষয়ের উত্তর না করলে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়ার সুযোগ নেই। তবে গত শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ কমিটি এই নিয়মের ব্যাত্যয় ঘটিয়েছে। যদিও ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গণিতের সমকক্ষ হিসেবে আইসিটি বিষয় ধরা হয়েছিল। এছাড়া বাংলা এবং ইংরেজি বিষয়ে উত্তর করা বাধ্যতামূলক ছিল। তবে এবছর আইসিটি ছিল না। এছাড়া বাংলা এবং ইংরেজি অপশনাল ছিল। ফলে গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পেলে শিক্ষার্থীদের বড় একটি অংশ বঞ্চিত হবে।

অরেকটি পক্ষ মনে করেন, এইচএসসিতে বিজ্ঞানের সকল শিক্ষার্থীই গণিত পড়েছে। সেখানে ভর্তি পরীক্ষায় কে গণিতের উত্তর করলো আর কে করলো না সেটি মূখ্য বিষয় হতে পারে না। ভর্তি পরীক্ষা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা। এখানে প্রাপ্ত নম্বর মূল বিষয় হওয়া দরকার। কে গণিতের উত্তর করলো আর কে জীববিজ্ঞান বিষয়ের উত্তর করলো সেটি দেখা উচিত নয়।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কমিটি এবং মূল কমিটির সদস্যদের সাথে। তারা বলছেন, বিষয়টি নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শিগগিরই তারা এ বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গুচ্ছের মূল কমিটির আহবায়ক এবং শাহাজাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন বলেন, গত শিক্ষাবর্ষে কি হয়েছে সেটি নিয়ে আমরা ভাবতে চাই। এ বছর গণিত না দাগিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয় পাওয়া যাবে কিনা সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

তিনি আরও বলেন, আগামী ২০ আগস্ট আমাদের ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এই ইউনিটের পরীক্ষা শেষে এ বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন