খুবির ৯ শিক্ষার্থীকে শোকজ

খুলনার জিরোপয়েন্টে হোটেল মালিক ও কর্মচারীকে মারধরের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি ও নয় শিক্ষার্থীকে শোকজ (কারণ দর্শাও) চিঠি দিয়েছে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) ছাত্র বিষয়ক পরিচালকের দফতর। রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ছাত্র বিষয়ক পরিচালকের দফতরের বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

খুবি ছাত্র বিষয়ক পরিচালক ড. শরীফ হাসান লিমন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে সহকারী অধ্যাপক তালুকদার রাসেল মাহমুদকে।

শোকজ করা শিক্ষার্থীরা হলেন- খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ডিসিপ্লিনের রাকিবুল হাসান (১৮), লালা বাবু মণ্ডল (১৮), সাজ্জাদ হোসেন (১৮), সাদমান শাহরিয়ার (১৮), মেহেদী হাসান (১৮), জিহাদ হোসেন (১৮), স্বরূপ রাহা (১৮), আরশি (১৮) ও ইউআরপি ডিসিপ্লিনের নীহারিকা (১৯)।

জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে খুবি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে জিরোপয়েন্ট ব্যবসায়ীদের টানাপোড়েন চলছে। ১৪ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ১০টার দিকে আপত্তিকর ভিডিও করার ঘটনা নিয়ে জিরো পয়েন্টের আল্লার দান হোটেলের মালিক ও কর্মচারীকে মারধর করা হয়। এ সময় ওই দোকান বন্ধ করে তালা দেওয়া হয়। এ ঘটনায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক শিক্ষার্থীকে অভিযুক্ত করে তাদের বিচার দাবিতে মানববন্ধন করে জিরোপয়েন্ট ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি। পরে খুবির ভিসির বরাবর স্মারকলিপি দেয়। ব্যবসায়ীরা ঘটনাস্থলের একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সরবরাহ করেছে।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক ড. শরীফ হাসান লিমন জানান, ব্যবসায়ীরা স্মারকলিপি ও কিছু ভিডিও ফুটেজ দিয়েছে। কয়েকজন শিক্ষার্থীকে ডেকে আগেই ঘটনার সঙ্গে তাদের সম্পৃক্ততা আছে কিনা জানতে চাওয়া হয়েছে। এখন ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন ও নয় শিক্ষার্থীকে শোকজ দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) শিক্ষার্থীরা শোকজের চিঠি হাতে পাবেন।