The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪

এইচএসসির খাতা চ্যালেঞ্জ করে নতুন করে জিপিএ-৫ পেলেন ৩১৫ জন

আজ শুক্রবার (১০ মার্চ) এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার খাতা পুনর্নিরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে ৯টি বোর্ডের প্রকাশিত পুনর্নিরীক্ষণের ফল বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য জানা গেছে। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ফল এখনো বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়নি।

প্রকাশিত ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায় খাতা চ্যালেঞ্জ করে প্রায় তিন হাজার পরীক্ষার্থীর ফলাফল পরিবর্তন হয়েছে। অবাক করার মত বিষয় হলেও এর মধ্যে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩১৫ জন শিক্ষার্থী।

এমনকি ফেল থেকে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছেন একজন শিক্ষার্থী। একই সাথে ফেল থেকে নতুন করে পাস করেছেন ৩৯৯ জন শিক্ষার্থী।

এছাড়াও বিভিন্ন গ্রেডে আরও ২ হাজার ৮৩৫ জন শিক্ষার্থীর ফলাফল পরিবর্তন হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পুনর্নিরীক্ষণে নতুন করে কোনো উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হয় না। শুধু উত্তরপত্রে শিক্ষার্থীর প্রাপ্ত নম্বরের যোগ-বিয়োগগুলো দেখা হয়। এতেই এতো সংখ্যক শিক্ষার্থীর ফল পরিবর্তন হয়েছে। এটা শুধু পরীক্ষকদের গাফিলতির কারণে হয় বলে মনে করছেন বোর্ড কর্মকর্তারা।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. পরীক্ষা ও ফালাফল
  3. এইচএসসির খাতা চ্যালেঞ্জ করে নতুন করে জিপিএ-৫ পেলেন ৩১৫ জন

এইচএসসির খাতা চ্যালেঞ্জ করে নতুন করে জিপিএ-৫ পেলেন ৩১৫ জন

আজ শুক্রবার (১০ মার্চ) এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার খাতা পুনর্নিরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে ৯টি বোর্ডের প্রকাশিত পুনর্নিরীক্ষণের ফল বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য জানা গেছে। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ফল এখনো বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়নি।

প্রকাশিত ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায় খাতা চ্যালেঞ্জ করে প্রায় তিন হাজার পরীক্ষার্থীর ফলাফল পরিবর্তন হয়েছে। অবাক করার মত বিষয় হলেও এর মধ্যে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩১৫ জন শিক্ষার্থী।

এমনকি ফেল থেকে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছেন একজন শিক্ষার্থী। একই সাথে ফেল থেকে নতুন করে পাস করেছেন ৩৯৯ জন শিক্ষার্থী।

এছাড়াও বিভিন্ন গ্রেডে আরও ২ হাজার ৮৩৫ জন শিক্ষার্থীর ফলাফল পরিবর্তন হয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পুনর্নিরীক্ষণে নতুন করে কোনো উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হয় না। শুধু উত্তরপত্রে শিক্ষার্থীর প্রাপ্ত নম্বরের যোগ-বিয়োগগুলো দেখা হয়। এতেই এতো সংখ্যক শিক্ষার্থীর ফল পরিবর্তন হয়েছে। এটা শুধু পরীক্ষকদের গাফিলতির কারণে হয় বলে মনে করছেন বোর্ড কর্মকর্তারা।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন