The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

খাওয়ার আগে, না পরে, কোন সময়ে দাঁত মাজা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল?

পৃথিবী উল্টে গেলেও সারা দিনে দু’বার দাঁত মাজতেই হবে। ছোট থেকে অনেকেই এমন অভ্যাসে অভ্যস্ত। এ ছাড়াও স্বাস্থ্য সচেতন মানুষজন তেমন কিছু না হলেও মাঝে মধ্যেই দাঁতের চিকিৎসকের কাছে গিয়ে ‘স্কেল’, ‘ফ্লস’ বা ‘ক্লিন’ করিয়ে আসেন। নিঃসন্দেহে তা ভাল অভ্যাস। তবে দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে গেলে শুধু দাঁত পরিষ্কার করলেই তো চলবে না! পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া করাও জরুরি। নেটমাধ্যমে প্রভাবী করি রডরিজ় নামক এক ব্যক্তি অনুরাগীদের জন্য তাঁর ইনস্টা হ্যান্ডলে দাঁতের স্বাস্থ্য নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন। সেখানে তিনি বলেন, “অনেকেই ঘুম থেকে উঠে চা বা কফি খান। তার পর প্রাতরাশ করে দাঁত মাজতে যান। এই অভ্যাসও কিন্তু দাঁত নষ্ট হওয়ার একটি কারণ।” এ ছাড়াও দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে রডরিজ় বেশ কিছু টোটকা বাতলে দিয়েছেন।

দিনে দু’বার দাঁত মাজা ছাড়াও আর কী কী করবেন? কী ভাবে দাঁত মাজবেন?

এক দিন গায়ের জোরে ঘষলেই কিন্তু দাঁতের দাগ উঠে যাবে না। তাই মাড়িতে বা দাঁতে বেশি চাপ পড়ে, এমন ভাবে ব্রাশ করা উচিত নয়।

দিনে কত বার দাঁত মাজবেন?

চিকিৎসকদের মতে, দিনে দু’বার দাঁত মাজাই যথেষ্ট। ঘুম থেকে উঠে এবং ঘুমোতে যাওয়ার আগে। তবে, দাঁত ভাল রাখতে প্রতি বার খাবার খাওয়ার পরে ভাল করে মুখ ধোয়া বা ফ্লস করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

কী ধরনের মাজন ব্যবহার করবেন?

ইদানীং দাঁতের সমস্যা অনুযায়ী আলাদা আলাদা মাজন ব্যবহার চল শুরু হয়েছে। পোকা ধরা দাঁত, মাড়ি থেকে রক্ত পড়া, খাবারের অংশ দাঁতের খাঁজে আটকানো, এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসকরা ফ্লুওরাইড নামক যৌগ আছে, এমন মাজন ব্যবহার করার পরামর্শ দেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Facebook পেজ)

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. লাইফ স্টাইল
  3. খাওয়ার আগে, না পরে, কোন সময়ে দাঁত মাজা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল?

খাওয়ার আগে, না পরে, কোন সময়ে দাঁত মাজা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল?

পৃথিবী উল্টে গেলেও সারা দিনে দু’বার দাঁত মাজতেই হবে। ছোট থেকে অনেকেই এমন অভ্যাসে অভ্যস্ত। এ ছাড়াও স্বাস্থ্য সচেতন মানুষজন তেমন কিছু না হলেও মাঝে মধ্যেই দাঁতের চিকিৎসকের কাছে গিয়ে ‘স্কেল’, ‘ফ্লস’ বা ‘ক্লিন’ করিয়ে আসেন। নিঃসন্দেহে তা ভাল অভ্যাস। তবে দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে গেলে শুধু দাঁত পরিষ্কার করলেই তো চলবে না! পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর খাওয়াদাওয়া করাও জরুরি। নেটমাধ্যমে প্রভাবী করি রডরিজ় নামক এক ব্যক্তি অনুরাগীদের জন্য তাঁর ইনস্টা হ্যান্ডলে দাঁতের স্বাস্থ্য নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন। সেখানে তিনি বলেন, “অনেকেই ঘুম থেকে উঠে চা বা কফি খান। তার পর প্রাতরাশ করে দাঁত মাজতে যান। এই অভ্যাসও কিন্তু দাঁত নষ্ট হওয়ার একটি কারণ।” এ ছাড়াও দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে রডরিজ় বেশ কিছু টোটকা বাতলে দিয়েছেন।

দিনে দু’বার দাঁত মাজা ছাড়াও আর কী কী করবেন? কী ভাবে দাঁত মাজবেন?

এক দিন গায়ের জোরে ঘষলেই কিন্তু দাঁতের দাগ উঠে যাবে না। তাই মাড়িতে বা দাঁতে বেশি চাপ পড়ে, এমন ভাবে ব্রাশ করা উচিত নয়।

দিনে কত বার দাঁত মাজবেন?

চিকিৎসকদের মতে, দিনে দু’বার দাঁত মাজাই যথেষ্ট। ঘুম থেকে উঠে এবং ঘুমোতে যাওয়ার আগে। তবে, দাঁত ভাল রাখতে প্রতি বার খাবার খাওয়ার পরে ভাল করে মুখ ধোয়া বা ফ্লস করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

কী ধরনের মাজন ব্যবহার করবেন?

ইদানীং দাঁতের সমস্যা অনুযায়ী আলাদা আলাদা মাজন ব্যবহার চল শুরু হয়েছে। পোকা ধরা দাঁত, মাড়ি থেকে রক্ত পড়া, খাবারের অংশ দাঁতের খাঁজে আটকানো, এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসকরা ফ্লুওরাইড নামক যৌগ আছে, এমন মাজন ব্যবহার করার পরামর্শ দেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Facebook পেজ)

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন