The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

কেন্দ্রের নির্দেশনা মানেনি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

রাহাত, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ঃ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার পরও নির্দিষ্ট তারিখে সম্মেলন আয়োজন করতে পারেনি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। এছাড়া ক্যাম্পাসেও নেই সংগঠনটির শীর্ষ নেতাদের কেউ। নির্দিষ্ট দিনে সম্মেলন আয়োজন না করে শাখা ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার অবমাননা করেছেন বলে অভিযোগ পদপ্রত্যাশী নেতাদের।

জানা গেছে, গত ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল ৮ নভেম্বর (মঙ্গলবার) সম্মেলনের দিন নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু গতকাল ক্যাম্পাসে শাখা ছাত্রলীগের এমন কোন আয়োজন দেখা যায়নি।

জানা গেছে সম্মেলনের নির্ধারিত দিনেও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু অবস্থান করছিলেন ঢাকায়। আর সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সফর সঙ্গী হয়ে আছেন যশোরে। সাধারণ সম্পাদকের ফেসবুক এবং গণমাধ্যমে দেয়া বক্তব্য অনুযায়ী যার সত্যতা পাওয়া গেছে।

সম্মেলন না হওয়ার বিষয়ে ইউনিটটির কেন্দ্রীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা পুতুল চন্দ্র রায় দ্যা বলেন, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকে সাধারণ সম্পাদক একা সম্মেলন করতে অপারগতা প্রকাশ করে আরও সময় চেয়েছেন। কিন্তু এটার সুযোগ নেই।

এদিকে, সম্মেলন নিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের দায়িত্বহীন আচরণে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে পদপ্রত্যাশী নেতাদের মাঝে।

শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে শাখাটির সম্মেলন হওয়ার সুযোগ নেই। এই সময়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কমিটি করার পরিকল্পনা চলছে। ব্যাপারটা এমন হলে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক হতে পারেন নতুন কমিটির সভাপতি; যিনি লেখক ভট্টাচার্য্যের অনুসারী।

অন্যদিকে সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের পক্ষ থেকেও দুজনের নাম উঠে আসছে এ পদে। যার মধ্যে একজন ত্রিশালের স্থানীয়, অন্যজন খুলনা অঞ্চলের। সম্মেলন না হওয়া পদপ্রত্যাশী নেতাদের ধারণা প্রেস রিলিজের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতার পছন্দ থেকেই আসবে শাখা ছাত্রলীগের পরবর্তী নেতৃত্ব।

সম্মেলন ও কমিটি গঠনের বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটি যা চায় তাই হবে। আমি বর্তমানে কাজে ঢাকায় রয়েছি।

সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব বলেন, আমি দাদার (লেখক ভট্টাচার্য্য) সঙ্গে যশোর আছি। আমি একা কিছু পারবো না। কেন্দ্রীয় কমিটি সিদ্ধান্ত দিলে সেভাবেই কাজ হবে। কবে ক্যাম্পাসে ফিরবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, বুধবার আসবো।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. কেন্দ্রের নির্দেশনা মানেনি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

কেন্দ্রের নির্দেশনা মানেনি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

রাহাত, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ঃ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার পরও নির্দিষ্ট তারিখে সম্মেলন আয়োজন করতে পারেনি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। এছাড়া ক্যাম্পাসেও নেই সংগঠনটির শীর্ষ নেতাদের কেউ। নির্দিষ্ট দিনে সম্মেলন আয়োজন না করে শাখা ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার অবমাননা করেছেন বলে অভিযোগ পদপ্রত্যাশী নেতাদের।

জানা গেছে, গত ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে গতকাল ৮ নভেম্বর (মঙ্গলবার) সম্মেলনের দিন নির্ধারণ করে দেয়। কিন্তু গতকাল ক্যাম্পাসে শাখা ছাত্রলীগের এমন কোন আয়োজন দেখা যায়নি।

জানা গেছে সম্মেলনের নির্ধারিত দিনেও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু অবস্থান করছিলেন ঢাকায়। আর সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সফর সঙ্গী হয়ে আছেন যশোরে। সাধারণ সম্পাদকের ফেসবুক এবং গণমাধ্যমে দেয়া বক্তব্য অনুযায়ী যার সত্যতা পাওয়া গেছে।

সম্মেলন না হওয়ার বিষয়ে ইউনিটটির কেন্দ্রীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা পুতুল চন্দ্র রায় দ্যা বলেন, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এদিকে সাধারণ সম্পাদক একা সম্মেলন করতে অপারগতা প্রকাশ করে আরও সময় চেয়েছেন। কিন্তু এটার সুযোগ নেই।

এদিকে, সম্মেলন নিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের দায়িত্বহীন আচরণে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে পদপ্রত্যাশী নেতাদের মাঝে।

শাখা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে শাখাটির সম্মেলন হওয়ার সুযোগ নেই। এই সময়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কমিটি করার পরিকল্পনা চলছে। ব্যাপারটা এমন হলে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক হতে পারেন নতুন কমিটির সভাপতি; যিনি লেখক ভট্টাচার্য্যের অনুসারী।

অন্যদিকে সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের পক্ষ থেকেও দুজনের নাম উঠে আসছে এ পদে। যার মধ্যে একজন ত্রিশালের স্থানীয়, অন্যজন খুলনা অঞ্চলের। সম্মেলন না হওয়া পদপ্রত্যাশী নেতাদের ধারণা প্রেস রিলিজের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের শীর্ষ দুই নেতার পছন্দ থেকেই আসবে শাখা ছাত্রলীগের পরবর্তী নেতৃত্ব।

সম্মেলন ও কমিটি গঠনের বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবু বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটি যা চায় তাই হবে। আমি বর্তমানে কাজে ঢাকায় রয়েছি।

সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব বলেন, আমি দাদার (লেখক ভট্টাচার্য্য) সঙ্গে যশোর আছি। আমি একা কিছু পারবো না। কেন্দ্রীয় কমিটি সিদ্ধান্ত দিলে সেভাবেই কাজ হবে। কবে ক্যাম্পাসে ফিরবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, বুধবার আসবো।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন