The Rising Campus
News Media

কুড়িগ্রামের দুই উপজেলার নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয়

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : (২ নভেম্বর ২০২২)কুড়িগ্রামের রৌমারী ও চিলমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের উপ-নির্বাচনে দুটিতেই আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা পরাজয় বরণ করেছেন। দু’টিতেই জয়লাভ করে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী।

চিলমারী উপজেলায় আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী রুকুনুজ্জামান (শাহীন)। আর রৌমারীতে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমান আলী।

বুধবার (২ নভেম্বর) রাতে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম রাকিব বেসরকারি এই ফলাফল নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বুধবার সকাল ৮টায় এই দুই উপজেলায় মোট ১১৪টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোনও রাজনৈতিক দল এ নির্বাচনে অংশ নেয়নি। চিলমারী উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীসহ ৫ জন এবং রৌমারী উপজেলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীসহ ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ করতে যাবতীয় প্রস্তুতি নেয় নির্বাচন কমিশন। কোনও ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ভোটগ্রহণ শেষ হয়। তবে ভোটকেন্দ্রগুলোতে দিনব্যাপী ভোটার উপস্থিতি ছিল অত্যন্ত কম।

বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফলাফলে জানা গেছে, চিলমারীতে আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী প্রার্থী রুকুনুজ্জামান পেয়েছেন ১৬ হাজার ২০৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সোলায়মান আলী সরকার ১৪ হাজার ৩৬২ ভোট পেয়েছেন।

অন্যদিকে, রৌমারীতে ঘোড়া প্রতীকে বিজয়ী প্রার্থী ইমান আলী পেয়েছেন ২২ হাজার ২১৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী দোয়াত-কলম প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ হাজার ৫৯২ ভোট। এ উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলামের অবস্থান চতুর্থ। তিনি পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৪১৪ ভোট।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম রাকিব বলেন, ‘কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ও অভিযোগ ছাড়াই নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই।’

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.