The Rising Campus
News Media
বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

কুবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘অভিনব’ বিজ্ঞপ্তির বিপরীতে নিয়োগ স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে হাইকোর্টে দায়ের করা এক রিট নিষ্পত্তির আলোকে এ ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট থেকে রিট সংক্রান্ত এক চিঠি আসার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নেয়।

জানা গেছে, ‘অভিনব’ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিপরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ কার্যক্রমকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহেরসহ আরও সাতজন শিক্ষক। চিঠি পাওয়ার পরবর্তী সাত দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে রিট নিষ্পত্তির জন্য আদশ দেয় বিচারপতি মাহমুদুল হক ও মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ।

এর আগে নভেম্বরের মাঝামাঝিতে এ বিজ্ঞপ্তি সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ করে বিভিন্ন গণমাধ্যম। খবরে বলা হয়, নির্দিষ্ট এক প্রার্থীর কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের আবেদনের যোগ্যতা না থাকায় ‘অভিনব’ উপায়ে অননুমোদিত একটি অনুবিধি যোগ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কুবি। গত ২৭ নভেম্বর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি বাতিল করতে সচেতন শিক্ষকদের পক্ষে উপাচার্য বরাবর চিঠি দেওয়া হয়। উপাচার্যের কার্যালয় থেকে শিক্ষকদের চিঠি প্রাপ্তি স্বীকারের অনুলিপি দেওয়া না হলে ও বিষয়টি আমলে না নিয়ে নিয়োগ কার্যক্রম চলমান রাখলে হাইকোর্ট রিট করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক।

এসব বিষয়ে কথা বলতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন ও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরীর মুঠোফোনে একাধিকবার কল ও খুদেবার্তা পাঠিয়েও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে যেসব বিভাগের পরীক্ষার তারিখ নির্ধারিত হয়েছিল, সেসব বিভাগের বিভাগীয় প্রধানরা পরীক্ষা স্থগিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিটকারীদের পক্ষের আইনজীবী মো. মোতাহের হোসেন বলেন, যে বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করা হয়েছে, সেটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট অনুমোদিত নয়। এমনভাবে একটি অনুবিধি যুক্ত করা হয়েছে, যাতে অযোগ্য ব্যক্তিও শিক্ষক হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

কুবি প্রতিনিধি: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘অভিনব’ বিজ্ঞপ্তির বিপরীতে নিয়োগ স্থগিত করেছে কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে হাইকোর্টে দায়ের করা এক রিট নিষ্পত্তির আলোকে এ ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট থেকে রিট সংক্রান্ত এক চিঠি আসার পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নেয়।

জানা গেছে, ‘অভিনব’ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিপরীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ কার্যক্রমকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহেরসহ আরও সাতজন শিক্ষক। চিঠি পাওয়ার পরবর্তী সাত দিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে রিট নিষ্পত্তির জন্য আদশ দেয় বিচারপতি মাহমুদুল হক ও মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ।

এর আগে নভেম্বরের মাঝামাঝিতে এ বিজ্ঞপ্তি সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ করে বিভিন্ন গণমাধ্যম। খবরে বলা হয়, নির্দিষ্ট এক প্রার্থীর কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগের আবেদনের যোগ্যতা না থাকায় ‘অভিনব’ উপায়ে অননুমোদিত একটি অনুবিধি যোগ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কুবি। গত ২৭ নভেম্বর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি বাতিল করতে সচেতন শিক্ষকদের পক্ষে উপাচার্য বরাবর চিঠি দেওয়া হয়। উপাচার্যের কার্যালয় থেকে শিক্ষকদের চিঠি প্রাপ্তি স্বীকারের অনুলিপি দেওয়া না হলে ও বিষয়টি আমলে না নিয়ে নিয়োগ কার্যক্রম চলমান রাখলে হাইকোর্ট রিট করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক।

এসব বিষয়ে কথা বলতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এএফএম আবদুল মঈন ও রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরীর মুঠোফোনে একাধিকবার কল ও খুদেবার্তা পাঠিয়েও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। তবে যেসব বিভাগের পরীক্ষার তারিখ নির্ধারিত হয়েছিল, সেসব বিভাগের বিভাগীয় প্রধানরা পরীক্ষা স্থগিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রিটকারীদের পক্ষের আইনজীবী মো. মোতাহের হোসেন বলেন, যে বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করা হয়েছে, সেটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট অনুমোদিত নয়। এমনভাবে একটি অনুবিধি যুক্ত করা হয়েছে, যাতে অযোগ্য ব্যক্তিও শিক্ষক হওয়ার সুযোগ রয়েছে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন