The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪

উৎসবমুখর পরিবেশে ইবিতে বিজয় দিবস পালিত

ইবি প্রতিনিধি : ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে ৫২ তম মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে । পতাকা উত্তোলন, বিজয় শোভাযাত্রা, ‘মুক্তবাংলায় পুষ্পস্তবক অর্পণ, প্রীতি ভলিবল প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সকাল শোয়া ১০ টায় প্রশাসন ভবনের সামনে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

এসময় গার্ড অব অনারসহ জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া ও রেজিস্ট্রার এইচ. এম আলী হাসান

এর আগে আবাসিক হলের প্রভোস্টরা স্ব স্ব হলে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন।

পতাকা উত্তোলন শেষে সকাল সাড়ে ১০টায় প্রশাসন ভবন চত্বর হতে উপাচার্য ও উপ-উপাচার্যের নেতৃত্বে বিজয় শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ‘মুক্তবাংলা’র পাদদেশে গিয়ে শেষ হয়।

এরপর একে একে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, শিক্ষক সমিতি, প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরাম, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, মুক্তিযুদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্রমৈত্রী, প্রেসক্লাব, সাংবাদিক সমিতি, ইবি ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ, আবাসিক হল ও বিভাগসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, সাংবাদিক সংগঠনসমূহ ‘মুক্তবাংলা’র পাদদেশে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করে।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে মহান মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নিরাবতা পালন এবং দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম ড. আ স ম শোয়াইব আহমদ। সবশেষে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনেত পক্ষ থেকে মৃত্যুঞ্জয়ী ম্যুরালে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন উপাচার্য, উপ-উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষ ও রেজিস্ট্রার।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে উপাচার্য ড. শেখ আব্দুস সালাম বলেন, অনুভূতি বলতে বিজয় আমরা দেখেছি ছিনিয়ে এনেছি। বাংলাদেশ পৃথিবীর অনন্য এক দেশ এই কারণে যে আমরা একি সময়েই বিজয় একি সময়ে স্বাধীনতা পেয়েছি। পৃথিবীর অনেক দেশ স্বাধীন হয়েছে কিন্তু বিজয় দেখেনি। আমরা বিজয় দেখেছিও এবং বিজয় ছিনিয়ে এনেছি। এর মাধ্যমে আজ আমরা আজকের বিশেষ অনুস্করণ করি এই বাংলাদেশের স্বপ্ন আমাদের মাঝে যিনি বুনিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশের মতো ধ্বংসযজ্ঞের মধ্যে সবুজ ঘাস ফোটার যাত্রা ওনি শুরু করেছেন।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কিংবা আমাদের যে প্রজন্ম আমরা আসলে বাংলাদেশ জন্ম দেওয়ার প্রজন্মের সাথে যুক্ত ছিলাম। আমরা কেনো যুক্ত ছিলাম কারণ আপনারা এটি ভোগ করবেন। এই ভোগটাকে কিভাবে সান্নিধ্যে করবেন কিভাবে প্রজন্মের পর প্রজন্মে ছড়িয়ে দিবেন। এই ছড়িয়ে দেওয়ার দায়িত্ব আপনারা বর্তমান প্রজন্মের।

এরপর সকাল সাড়ে ১১ টায় মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ফুটবল মাঠে শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অংশগ্রহণে প্রীতি ভলিবল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

খেলার উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম। খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এরপর দুপুরে আবাসিক হল সমূহে শিক্ষর্থীদের জন্য উন্নতমানের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.