The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
রবিবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪

উত্তাল রাবি ক্যাম্পাস , স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী

সোহানুর রহমান, রাবিঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) সংলগ্ন বিনোদপুরে স্থানীয়দের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়দের ককটেল নিক্ষেপে ৫০ শিক্ষার্থী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও দুটি মোটরসাইকেলসহ পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে বহিরাগতরা।

শনিবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এই ঘটনার সূত্রপাত হয়। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (সন্ধ্যা সাড়ে নয়টা ) সংঘর্ষ চলমান রয়েছে। শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ চলছে।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বগুড়া থেকে বাসে করে রাজশাহী আসছিলেন সমাজবিজ্ঞান বিভাগের এক শিক্ষার্থী। সিটে বসাকে কেন্দ্র করে তার সঙ্গে ঝামেলা হয় একজনের। পরে বাস বিনোদপুর বাজারে আসলে বাস আটকে ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে এক দোকানি এসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাজে আচরণ করে। পরে ওই ব্যক্তির সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় দোকান ব্যবসায়ীরা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। বাঁশ-লাঠি নিয়ে তারা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া করে। শিক্ষার্থীরা বিনোদপুর গেট দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে। এরপর শিক্ষার্থীরা সংঘবদ্ধ হয়ে আবার বিনোদপুর গেটের দিকে লাঠিসোটা নিয়ে ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থল আসে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও তার কয়েকজন অনুসারী। পরে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে ঘটনাস্থলে থেকে বাইক রেখে চলে যান তারা। এসময় ৪টি বাইক ভাঙচুর করে স্থানীয়রা। পরে দুটি বাইকে আগুন দেয় তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতানা ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনেছি আমরা শিক্ষার্থী নিরাপত্তার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. উত্তাল রাবি ক্যাম্পাস , স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী

উত্তাল রাবি ক্যাম্পাস , স্থানীয়দের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী

সোহানুর রহমান, রাবিঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) সংলগ্ন বিনোদপুরে স্থানীয়দের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয়দের ককটেল নিক্ষেপে ৫০ শিক্ষার্থী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও দুটি মোটরসাইকেলসহ পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে বহিরাগতরা।

শনিবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এই ঘটনার সূত্রপাত হয়। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (সন্ধ্যা সাড়ে নয়টা ) সংঘর্ষ চলমান রয়েছে। শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপ চলছে।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বগুড়া থেকে বাসে করে রাজশাহী আসছিলেন সমাজবিজ্ঞান বিভাগের এক শিক্ষার্থী। সিটে বসাকে কেন্দ্র করে তার সঙ্গে ঝামেলা হয় একজনের। পরে বাস বিনোদপুর বাজারে আসলে বাস আটকে ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে এক দোকানি এসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাজে আচরণ করে। পরে ওই ব্যক্তির সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় দোকান ব্যবসায়ীরা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। বাঁশ-লাঠি নিয়ে তারা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া করে। শিক্ষার্থীরা বিনোদপুর গেট দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে। এরপর শিক্ষার্থীরা সংঘবদ্ধ হয়ে আবার বিনোদপুর গেটের দিকে লাঠিসোটা নিয়ে ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থল আসে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও তার কয়েকজন অনুসারী। পরে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে ঘটনাস্থলে থেকে বাইক রেখে চলে যান তারা। এসময় ৪টি বাইক ভাঙচুর করে স্থানীয়রা। পরে দুটি বাইকে আগুন দেয় তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতানা ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনেছি আমরা শিক্ষার্থী নিরাপত্তার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন