The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪

ইবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় ব্যাংক কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত

ইবি প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আল হাদিস ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে মারধরের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা সোহেল মাহমুদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অগ্রণী ব্যাংক কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা ২০০৮ এর ৪৪ ধারা মোতাবেক সোহেলকে এই শাস্তি দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) অগ্রণী ব্যাংক খুলনা সার্কেলের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো: মাহবুবুর রহমানের স্বাক্ষরিত এক জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে অভিযুক্ত সোহেল মাহমুদকে এ আদেশ দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কুষ্টিয়াস্থ অগ্রনী ব্যাংক চৌড়হাস শাখায় কর্মরত সোহেল মাহমুদের বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে মারধরের অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মহাসড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে। যা বিভিন্ন পত্রিকা এবং অনলাইন মিডিয়ায় প্রকাশিত হওয়ায় ব্যাংকের সুনাম এবং ভাবমূর্তি মারাত্মক ভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এছাড়াও ব্যাংকের চেয়ারম্যান বরাবর বিভাগের শিক্ষার্থীদের দেয়া স্মারকলিপি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা হয়ে ব্যাংকের এই ধরনের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ড একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। যার ফলে বিধান মোতাবেক এই সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেয়া হলো। বরখাস্তের আদেশ ৮ জুন ২০২৩ থেকেই কার্যকর থাকবে।

তবে, বরখাস্ত থাকাকালীন সময়ে অভিযুক্ত সোহেল মাহমুদ বিধি মোতাবেক সকল খোরাকি ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

বুধবার সকালে কুষ্টিয়া হাউজিং ডি ব্লক আবাসিক এলাকায় হাঁটতে বের হলে ড. মোস্তাফিজুর রহমানের উপর হামলা চালান বলে অভিযোগ ওঠে প্রতিবেশী ব্যাংক কর্মকর্তা সোহেলের বিরুদ্ধে। এসময় তাকে পরিবারসহ শহর ছাড়তে এবং অন্যথায় প্রাণনাশের হুমকি দেন সেই কর্মকর্তা। গুরুতর আহত অবস্থায় ড. মোস্তাফিজকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল বারী।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. ইবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় ব্যাংক কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত

ইবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় ব্যাংক কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত

ইবি প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আল হাদিস ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে মারধরের অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা সোহেল মাহমুদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। অগ্রণী ব্যাংক কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা ২০০৮ এর ৪৪ ধারা মোতাবেক সোহেলকে এই শাস্তি দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৮ জুন) অগ্রণী ব্যাংক খুলনা সার্কেলের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো: মাহবুবুর রহমানের স্বাক্ষরিত এক জরুরী বিজ্ঞপ্তিতে অভিযুক্ত সোহেল মাহমুদকে এ আদেশ দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কুষ্টিয়াস্থ অগ্রনী ব্যাংক চৌড়হাস শাখায় কর্মরত সোহেল মাহমুদের বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোস্তাফিজুর রহমানকে মারধরের অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মহাসড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে। যা বিভিন্ন পত্রিকা এবং অনলাইন মিডিয়ায় প্রকাশিত হওয়ায় ব্যাংকের সুনাম এবং ভাবমূর্তি মারাত্মক ভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এছাড়াও ব্যাংকের চেয়ারম্যান বরাবর বিভাগের শিক্ষার্থীদের দেয়া স্মারকলিপি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ব্যাংকের একজন কর্মকর্তা হয়ে ব্যাংকের এই ধরনের স্বার্থবিরোধী কর্মকাণ্ড একটি শাস্তিযোগ্য অপরাধ। যার ফলে বিধান মোতাবেক এই সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেয়া হলো। বরখাস্তের আদেশ ৮ জুন ২০২৩ থেকেই কার্যকর থাকবে।

তবে, বরখাস্ত থাকাকালীন সময়ে অভিযুক্ত সোহেল মাহমুদ বিধি মোতাবেক সকল খোরাকি ভাতা প্রাপ্ত হবেন।

বুধবার সকালে কুষ্টিয়া হাউজিং ডি ব্লক আবাসিক এলাকায় হাঁটতে বের হলে ড. মোস্তাফিজুর রহমানের উপর হামলা চালান বলে অভিযোগ ওঠে প্রতিবেশী ব্যাংক কর্মকর্তা সোহেলের বিরুদ্ধে। এসময় তাকে পরিবারসহ শহর ছাড়তে এবং অন্যথায় প্রাণনাশের হুমকি দেন সেই কর্মকর্তা। গুরুতর আহত অবস্থায় ড. মোস্তাফিজকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আব্দুল বারী।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন