The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪

ইবি জিয়াউর রহমান হলে তালা দিয়ে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শহীদ জিয়াউর রহমান হলের ফটকে তালা দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। রবিবার (৭ মে) বেলা ১২ টার দিকে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা।

এসময় হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা ‘ওয়াফাইয়ের স্থায়ী সমাধান চাই’, ‘ডাইনিং এর খাবারের মান বৃদ্ধি করুন’, ‘বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে হবে’, ‘হলের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে’, ‘হল প্রভোস্টের দায়িত্বহীনতার জবাবদিহি করতে হবে’, ‘দায়িত্বশীল প্রভোস্ট নিয়োগ করুন’, ‘বেতন ভাতা সবই হয়, কাজের বেলায় ফান্ড নাই’, ও ‘সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি মানতে হবে, নইলে দায়িত্ব ছাড়তে হবে’ সহ বিভিন্ন দাবি সম্বলিত লেখা ব্যানার নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন তারা।

এ বিষয়ে হলের আবাসিক শিক্ষার্থী হানিফ হোসাইন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে হলের ডাইনিং, টয়লেটগুলোতে অস্বস্তিকর পরিবেশ বিরাজ করছে। এছাড়া টিউবওয়েল নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে শিক্ষার্থীদের ট্যাপের পানি খাওয়ানো হচ্ছে। এছাড়া গত এক সপ্তাহ যাবত হলে ওয়াইফাই নেই। বিষয়গুলো নিয়ে কয়েকবার প্রভোস্ট স্যারের সাথে কথা বলেছি। কিন্তু কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি। এদিকে স্যারকে আবারও সমস্যার কথাগুলো অবহিত করলে তিনি বলেন, ‘সাধারণ ছাত্ররা যে যাই বলুক আমরা আমাদের মতো হল চালাবো’।

এ বিষয়ে হল প্রভোস্ট ড. আব্দুল জলিল পাঠান বলেন, ফান্ডে তেমন টাকা নেই। ফান্ড গঠন সাপেক্ষে যতদ্রুত সম্ভব যাবতীয় জিনিসপত্র কিনে ওয়াইফাইয়ের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করব।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. ইবি জিয়াউর রহমান হলে তালা দিয়ে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

ইবি জিয়াউর রহমান হলে তালা দিয়ে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শহীদ জিয়াউর রহমান হলের ফটকে তালা দিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। রবিবার (৭ মে) বেলা ১২ টার দিকে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা।

এসময় হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা 'ওয়াফাইয়ের স্থায়ী সমাধান চাই', 'ডাইনিং এর খাবারের মান বৃদ্ধি করুন', 'বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে হবে', 'হলের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে', 'হল প্রভোস্টের দায়িত্বহীনতার জবাবদিহি করতে হবে', 'দায়িত্বশীল প্রভোস্ট নিয়োগ করুন', 'বেতন ভাতা সবই হয়, কাজের বেলায় ফান্ড নাই', ও 'সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি মানতে হবে, নইলে দায়িত্ব ছাড়তে হবে' সহ বিভিন্ন দাবি সম্বলিত লেখা ব্যানার নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন তারা।

এ বিষয়ে হলের আবাসিক শিক্ষার্থী হানিফ হোসাইন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে হলের ডাইনিং, টয়লেটগুলোতে অস্বস্তিকর পরিবেশ বিরাজ করছে। এছাড়া টিউবওয়েল নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে শিক্ষার্থীদের ট্যাপের পানি খাওয়ানো হচ্ছে। এছাড়া গত এক সপ্তাহ যাবত হলে ওয়াইফাই নেই। বিষয়গুলো নিয়ে কয়েকবার প্রভোস্ট স্যারের সাথে কথা বলেছি। কিন্তু কোনো সদুত্তর পাওয়া যায়নি। এদিকে স্যারকে আবারও সমস্যার কথাগুলো অবহিত করলে তিনি বলেন, 'সাধারণ ছাত্ররা যে যাই বলুক আমরা আমাদের মতো হল চালাবো'।

এ বিষয়ে হল প্রভোস্ট ড. আব্দুল জলিল পাঠান বলেন, ফান্ডে তেমন টাকা নেই। ফান্ড গঠন সাপেক্ষে যতদ্রুত সম্ভব যাবতীয় জিনিসপত্র কিনে ওয়াইফাইয়ের সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করব।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন