The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

ইবির হলে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা; লিখিত অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আবাসিক হলসমূহে গভীর রাত অবধি উচ্চ শব্দে গান-বাজনায় অতিষ্ঠ শিক্ষার্থীরা। পড়াশোনা ও ঘুমের স্বাভাবিক পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের দূর্ভোগ লাঘবের জন্য এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুর আড়াটায় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে তারা।

আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের পক্ষে লিখিত অভিযোগ দেয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ শেখ সহ কয়েকজন শিক্ষার্থী।

লিখিত অভিযোগে তারা বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেদের হলগুলোতে প্রায়ই রাতে উচ্চ শব্দে গান বাজানো হয়। কয়েকবার নিষেধ করার পরেও তা বন্ধ হয়নি। প্রতিনিয়ত গভীর রাত পর্যন্ত গানবাজনা তথা উচ্চ শব্দে মাইক বাজানোর ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের পড়াশোনায় মনযোগী হতে পারছে না। উচ্চ শব্দে গান বাজানোর ফলে পড়ালেখার পরিবেশ বিঘ্ন হওয়ায় শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এ বিষয়ে হল কর্তৃপক্ষকে বারবার বলার পরও কোন সুরহা হয়নি।

এ বিষয়ে প্রভোস্ট কাউন্সিল সভাপতি প্রফেসর ড. দেবাশীষ শর্মা বলেন, বিষয়টি নিন্দনীয়। অন্যের ক্ষতি হয় এমন কাজ করা উচিত নয় সেটা যেকোন কাজই হোক না কেন। তবে এধরনের ঘটনায় লিখিত বা মৌখিক যেকোনো ধরনের অভিযোগ যার বিরুদ্ধে আসবে তার হলের আবাসিকতা বাতিল করা হবে। আমি আগামী প্রভোস্ট কাউন্সিলের মিটিংয়ে এ বিষয়ে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।

প্রক্টর প্রফেসর ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ বলেন, আমি বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। এ বিষয়ে ভিসি স্যারের সাথেও কথা হয়েছে। ভিসি স্যার দ্রুত সময়ের মধ্যে হল প্রভোস্টদের ডেকে এ বিষয়ে একটি সুষ্ঠু সমাধান করবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. ইবির হলে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা; লিখিত অভিযোগ

ইবির হলে উচ্চ শব্দে গান-বাজনা; লিখিত অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আবাসিক হলসমূহে গভীর রাত অবধি উচ্চ শব্দে গান-বাজনায় অতিষ্ঠ শিক্ষার্থীরা। পড়াশোনা ও ঘুমের স্বাভাবিক পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের দূর্ভোগ লাঘবের জন্য এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুর আড়াটায় প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে তারা।

আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের পক্ষে লিখিত অভিযোগ দেয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ শেখ সহ কয়েকজন শিক্ষার্থী।

লিখিত অভিযোগে তারা বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছেলেদের হলগুলোতে প্রায়ই রাতে উচ্চ শব্দে গান বাজানো হয়। কয়েকবার নিষেধ করার পরেও তা বন্ধ হয়নি। প্রতিনিয়ত গভীর রাত পর্যন্ত গানবাজনা তথা উচ্চ শব্দে মাইক বাজানোর ফলে শিক্ষার্থীরা তাদের পড়াশোনায় মনযোগী হতে পারছে না। উচ্চ শব্দে গান বাজানোর ফলে পড়ালেখার পরিবেশ বিঘ্ন হওয়ায় শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এ বিষয়ে হল কর্তৃপক্ষকে বারবার বলার পরও কোন সুরহা হয়নি।

এ বিষয়ে প্রভোস্ট কাউন্সিল সভাপতি প্রফেসর ড. দেবাশীষ শর্মা বলেন, বিষয়টি নিন্দনীয়। অন্যের ক্ষতি হয় এমন কাজ করা উচিত নয় সেটা যেকোন কাজই হোক না কেন। তবে এধরনের ঘটনায় লিখিত বা মৌখিক যেকোনো ধরনের অভিযোগ যার বিরুদ্ধে আসবে তার হলের আবাসিকতা বাতিল করা হবে। আমি আগামী প্রভোস্ট কাউন্সিলের মিটিংয়ে এ বিষয়ে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।

প্রক্টর প্রফেসর ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ বলেন, আমি বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। এ বিষয়ে ভিসি স্যারের সাথেও কথা হয়েছে। ভিসি স্যার দ্রুত সময়ের মধ্যে হল প্রভোস্টদের ডেকে এ বিষয়ে একটি সুষ্ঠু সমাধান করবে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন