The Rising Campus
News Media

আসছে ৪৫তম বিসিএস, নভেম্বরে বিজ্ঞপ্তি

চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর। এ বছর সম্পূর্ণ নতুন একটি বিসিএস পেতে যাচ্ছেন সরকারি চাকরিপ্রার্থীরা। এই বিসিএস হবে ৪৫তম সাধারণ বিসিএস। আর এ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের জন্য সম্ভাব্য সময় নির্ধারণ করে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) বলছে, চাকরিপ্রার্থীদের বয়স বিবেচনায় আগামী নভেম্বরে ৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে। তবে পদের সংখ্যা এখনই বিস্তারিত জানানো হয়নি। পদের সংখ্যা বাড়াতে শেষ সময় পর্যন্ত চেষ্টা করা হবে বলে প্রথম আলোকে জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগের দায়িত্বে থাকা সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র প্রথম আলোকে বলেন, এক বছর আগে সর্বশেষ ৪৪তম সাধারণ বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছিল। সেই আলোকে এক বছর বিরতি দিয়ে নতুন বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের চেষ্টা করা হচ্ছে। সূত্রটি আরও জানায়, নভেম্বর মাসের যেকোনো সময়ে এটি প্রকাশিত হতে পারে। এখন ৪৫তম বিসিএসের কার্যক্রম কোন পর্যায়ে আছে, জানতে চাইলে একজন কর্মকর্তা বলেন, বিভিন্ন ক্যাডারে কতজনকে নেওয়া হবে, সেই বিষয়গুলো এখন সমন্বয়ের কাজ চলছে। অনেকগুলো মন্ত্রণালয় থেকে ক্যাডারের চাহিদা ইতিমধ্যে আসতে শুরু করেছে। বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের আগপর্যন্ত এগুলো সমন্বয় করে পদের সংখ্যা নির্দিষ্ট করা হবে। যতটা পদ বাড়িয়ে নিয়োগ দেওয়া যায়, সে চেষ্টাই করা হবে। পদ নির্দিষ্ট করে পিএসসিকে সেই পদের তালিকা পাঠিয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের জন্য বলা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ, পদোন্নতি ও প্রেষণ অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আবদুস সবুর মণ্ডল বলেন, ‘আমাদের বিভাগ ৪৫তম বিসিএস নিয়ে কাজ করছে। তবে বিস্তারিত জানাতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।’

পিএসসির চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেন, ‘এক বছর বিরতি দিয়ে নতুন বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সম্ভাবনা আছে। জনপ্রশাসন থেকে পদের সংখ্যা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এতে এ বছর যাঁদের চাকরির বয়স শেষ হয়ে যাচ্ছে, তাঁরা সুযোগ কাজে লাগাতে পারবেন। পদের সংখ্যা কত হতে পারে, এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ সংখ্যা জনপ্রশাসন ঠিক করে। তারা যে তালিকা দেবে, তা আমরা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করব।’

সর্বশেষ কয়েকটি বিসিএসে অংশ নেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাব্বির হোসেন। তিনি বলেন, ‘এ বছরের নভেম্বরের শেষ দিকে আমার সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়স শেষ হবে। আগেও কয়েকটি বিসিএস দিয়েছি। চাকরির বয়স শেষ হওয়ার আগে যদি আরেকটি বিসিএস দিতে পারি, তাহলে আমার জন্য খুব ভালো হয়। এখন আমার প্রস্তুতি ভালো, তাই আমার বিশ্বাস, শেষ বিসিএসে আমি সম্মানজনক একটি অবস্থান নিয়ে চাকরি পেতে পারি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার মতো অনেকের চাকরির বয়স এ বছরে শেষ হবে। সবার কথা বিবেচনায় নিয়ে পিএসসি ৪৫তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলে চাকরিপ্রার্থীদের অনেক উপকার হবে।’

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী মো. আনিস বলেন, ‘এ বছর আমাদের স্নাতক চূড়ান্ত পরীক্ষা শেষ হবে। শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একটি বিসিএসে আবেদনের সুযোগ পেলে সেটি আমাদের জন্য খুব ভালো হবে। পিএসসিকে বিষয়টি বিবেচনার অনুরোধ জানাচ্ছি। সরকারি চাকরির বয়স থাকতে থাকতে যতটি বিসিএস আমরা পাব, ততই চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি হবে।’

সর্বশেষ ৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি গত বছরের ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি) প্রকাশ করে। অনলাইনে আবেদনপ্রক্রিয়া শুরু হয় ৩০ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে।

৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এই বিসিএসে বিভিন্ন ক্যাডারে ১ হাজার ৭১০ কর্মকর্তা নেওয়া হবে।

২২ জুন বিকেলে ৪৪তম বিসিএসের ফল প্রকাশ করে পিএসসি। এতে ১৫ হাজার ৭০৮ প্রার্থী পাস করেন। এই প্রার্থীরা এখন লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবেন। ২ লাখ ৭৬ হাজার ৭৬০ প্রার্থী প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নেন। চলতি বছরের ২৭ মে ৪৪তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় প্রার্থীরা অংশ নেন। ৪৪তম বিসিএসে মোট আবেদন করেন ৩ লাখ ৫০ হাজার ৭১৬ জন।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.