আমরা যেন শিক্ষিত বেকার তৈরি না করি: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ২০১৮ সালের ইশতেহারে আমরা বলেছি শিক্ষার মান বাড়াতে হবে। আমরা যেন শুধু শিক্ষিত বেকার তৈরি না করি। এজন্য কারিগরি শিক্ষাও দিচ্ছি, দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যাও বাড়িয়েছি। সেখানে কর্মোপযোগী শিক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) দুপুরে বন্দরের ৪৭ নং লালমিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ২০০১ থেকে ২০০৮ সালে বিএনপি জামাতের আমলে বাংলাদেশের শিক্ষার মান বাড়েনি, কমেছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের সব শিশুকে শিক্ষার আওতায় নিয়ে আসতে পেরেছি।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা পড়ে পড়ে শিখবে, জানবে, মুখস্ত নয়। তারা যেন সে শিক্ষাটাকে কাজে লাগাতে পারে। নয়তো সেটার কোনো মূল্য নেই। তারা মূল্যবোধ শিখবে, অসাম্প্রদায়িক মানুষ হবে। মানুষের প্রতি সম্মানবোধ নিয়ে তারা বড় হবে। বৈধ কোনো কাজকে তারা ছোট মনে করবে না। তারাই গড়বে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা।

বর্তমান সরকারের আমলে উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, যোগাযোগ থেকে শিক্ষা ব্যবস্থা সকল ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। আমরা যত উন্নয়ন করি না কেন শিক্ষার উন্নয়ন না হলে তা কাজে আসবে না। বঙ্গবন্ধু সেই সময় স্বল্প বাজেটের মধ্যেই সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিয়েছিলেন শিক্ষা খাতে। শিক্ষা সর্বশ্রেষ্ঠ বিনিয়োগ। এটাই আমাদের সবচেয়ে বড় প্রজেক্ট।

অনুষ্ঠানে প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। আপনারা জানেন আগে কেউ প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে ভাবেননি। আজকে আমাদের শিক্ষা অনেক দূর এগিয়েছে। আজ স্কুলগুলোর অনেক উন্নতি হয়েছে।