The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪

আবার কার প্রেমে পড়লেন পরীমনি!

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। তিনি বরাবরই সামাজিকমাধ্যমে বেশ সক্রিয়। সাবেক স্বামী রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তাকে অধিকাংশ সময় ভারতে থাকতে দেখা যায়। পঞ্চম স্বামী শরিফুল রাজের সঙ্গে ডিভোর্সের পর কদিন আগেই ভারতে এসে তিনি জানিয়েছিলেন, আর বিয়ে করবেন না! তবে অভিনেত্রীর জীবনে নতুন পুরুষ আসার ইঙ্গেত পাচ্ছেন নেটিজেনরা।

২০২১ সালের অক্টোবর মাসে ‘গুণিন’ ছবির শুটিং সেটে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন রাজ আর পরীমনি। তারপর কদিনের আলাপের পর গোপনে বিয়ে। ২০২২ সালের জানুয়ারিতে গোপন বিয়ে আর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর, সামনে আনেন দুটোই। কিন্তু ২০২৩ আসার আগেই ছেদ পড়ে সে দাম্পত্যে। এমনকি তাদের একমাত্র ছেলে রাজ্যের (প্রথমে স্বামীর সঙ্গে নাম মিলিয়ে এই নাম রেখেছিলেন, এখন বদলে করেছেন পদ্ম) জন্মদিনেও আসেননি রাজ। আপাতত দুজনের বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। তাহলে কি সত্যিই নতুন করে মনের মানুষ খুঁজে পেলেন পরীমনি?

গত কয়েক দিন ধরেই সামাজিকমাধ্যমে পরীকে পাওয়া যাচ্ছে ফুরফুরে মেজাজে। সঙ্গে যে কবিতা বা গানের লাইন ক্যাপশন হিসেবে ব্যবহার করছেন, তা যেন নতুন কারও জীবনে আসারই আভাস দিচ্ছে।

শনিবার ছিল নচিকেতার গানের লাইন— ‘তুমি আসবে বলেই আকাশ মেঘলা, বৃষ্টি এখনো হয়নি/ তুমি আসবে বলেই কৃষ্ণচূড়ার ফুলগুলো ঝরে যায়নি/ তুমি আসবে বলেই।’ আর সোমবারে নতুন পোস্ট আরও প্রেমমাখা। সেখানে দেখা গেল কারি আমির উদ্দিনের লেখা বাংলাদেশের একটি লোকগান। লেখা হয়েছে, ‘সামনে দাঁড়াও একবার দেখি নয়ন ভরিয়া/ ভালোবাসি, তবে কেন যাও না শান্ত করিয়া/ তোমারে দেখিয়া একবার, জল ঢেলে দেই বেদনায়/ তোমারে দেখিবার মনে চায়…।’

২০২৩ সালের মে মাসেই প্রকাশ্য়ে এসে শরিফুল রাজের সঙ্গে আলাদা থাকার খবর ভাগ করে নিয়েছিলেন। সেই সময় গণমাধ্যমের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তাকে বলতে শোনা গেছে, ‘রাজের সঙ্গে এখন শারীরিক, মানসিক কোনো অ্যাটাচমেন্টই নাই। আমি যখন হাসপাতালে, তখনই বাসায় রাজ তার জিনিসপত্র গুছিয়ে রেখেছিল। আগেই প্রস্তুত ছিল বাসা থেকে বেরিয়ে যাবে। সম্পর্ক রাখবে না। এভাবে তো আর সংসার, সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়।’ খবর বলে, এটা ছিল পরীমনির পঞ্চম বিয়ে। এর আগেও বারবার মন ভেঙেছে তার।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.