The Rising Campus
News Media

আটার দাম কেজিতে বাড়ল ৬ টাকা

বাজারে আটার দাম আবারও বেড়েছে। প্যাকেটজাত ও খোলা দুই ধরনের আটাই আগের চেয়ে কেজিতে ক্ষেত্রবিশেষ ৪ থেকে ৬ টাকা বেশি দরে বিক্রি হচ্ছে।

কয়েকটি বিপণনকারী কোম্পানি আটার দুই কেজির প্যাকেটের মূল্য নির্ধারণ করেছে ১৪৪ টাকা, যা আগের চেয়ে ১২ টাকা বাড়িয়ে ধরা হয়েছে। অর্থাৎ কেজিপ্রতি দাম বেড়েছে ৬ টাকা।

ঢাকার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে নতুন দামে আটা বিক্রি হচ্ছে। খোলা আটার দামও বাজার ভেদে আগের চেয়ে ৪ থেকে ৬ টাকা বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে।

মানভেদে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬৫ টাকায়। এ নিয়ে ভোক্তারা জানিয়েছেন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া।

সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) তথ্য বলছে, এক বছরে প্যাকেটজাত আটার দাম ৬৩ ও খোলা আটার দাম ৮১ শতাংশ বেড়েছে।

দেশে গত ফেব্রুয়ারি থেকে রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর থেকে আটার দাম লাফিয়ে বাড়ছে। বাংলাদেশের গমের বড় উৎস ছিল রাশিয়া ও ইউক্রেন। ভারত থেকেও আমদানি বাড়ছিল। ভারত রপ্তানিতে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। বিশ্ববাজারে আটার দামও বাড়তি।

আগের তুলনায় দেশে গম আমদানিও কম হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, এ কারণে অক্টোবরের শেষ দিকে আটার মিলগুলো থেকে সরবরাহ কমে যায়। এখন সরবরাহ পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতির দিকে। তবে দাম না কমে  বাড়ছে। গত অক্টোবর মাসেও প্রতি দুই কেজির আটার প্যাকেটের সর্বোচ্চ মূল্য ছিল ১২৬ টাকা। এখন সেটা বেড়ে সর্বোচ্চ ১৪৪ টাকা।

গমজাত পণ্যগুলোর দামও বাড়তির দিকে। এমনকি গোখাদ্য গমের ভুষির দামও বেড়েছে। কোম্পানি ভেদে বস্তায় ২০০ থেকে ৩০০ টাকা বেড়েছে ভুষি।

রাজধানীর মহাখালী কাচাবাজারের ব্যবসায়ী নুর আলম বলেন, বাজারে খোলা আটার সংকট এখনো কাটেনি। এর মধ্যে প্যাকেটজাত আটার দাম বেড়ে গেছে। আমাদেরকে বাড়তি দরে কিনতে হচ্ছে। তাই বিক্রিও বেশিতে করতে হচ্ছে।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.