The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থার আওতায় আনতে চায় ইউজিসি

আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থার ধাচে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য একটি অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালু করতে সুপারিশ করেছে (ইউজিসি)। এর আগে অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালুর কথা জানিয়েছিল উচ্চশিক্ষার মানদণ্ড নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল।

কমিশনের ৪৮তম বার্ষিক প্রতিবেদনে উচ্চশিক্ষার মান উন্নয়নে ১৭টি সুপারিশ করেছে ইউজিসি। এই সুপারিশগুলোর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে বয়স ও সময়ের বাধ্যবাধকতা শিথিল করাসহ অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালুর কথা বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতির হাতে তুলে দেওয়া হবে এ বার্ষিক প্রতিবেদন।

সুপারিশে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থার আদলে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য একটি অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা প্রবর্তনে সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালু হলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে উৎকর্ষ অর্জনের একটি প্রতিযোগিতা তৈরি হবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থার আওতায় আনতে চায় ইউজিসি

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থার আওতায় আনতে চায় ইউজিসি

আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থার ধাচে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য একটি অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালু করতে সুপারিশ করেছে (ইউজিসি)। এর আগে অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালুর কথা জানিয়েছিল উচ্চশিক্ষার মানদণ্ড নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল।

কমিশনের ৪৮তম বার্ষিক প্রতিবেদনে উচ্চশিক্ষার মান উন্নয়নে ১৭টি সুপারিশ করেছে ইউজিসি। এই সুপারিশগুলোর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে বয়স ও সময়ের বাধ্যবাধকতা শিথিল করাসহ অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালুর কথা বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতির হাতে তুলে দেওয়া হবে এ বার্ষিক প্রতিবেদন।

সুপারিশে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিং ব্যবস্থার আদলে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য একটি অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা প্রবর্তনে সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারে। অভ্যন্তরীণ র‌্যাংকিং ব্যবস্থা চালু হলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষা ও গবেষণা ক্ষেত্রে উৎকর্ষ অর্জনের একটি প্রতিযোগিতা তৈরি হবে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন