The Rising Campus
News Media

পোষা বিড়াল হত্যার বিচার চান কিশোরী: থনায় অভিযোগ দায়ের

মুন্সীগঞ্জে পোষা বিড়াল হত্যায় জড়িতদের বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ করেছেন এক স্কুল ছাত্রী। অভিযোগ আমলে নিয়ে পুলিশও মৃত বিড়ালটি ময়নাতদন্তের জন্য উপজেলা পশু হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

বিড়ালের মালিক আছিয়া আক্তারের পরিবারের দাবি, পূর্বশত্রুতার জেরে পাশ্ববর্তী এক প্রতিবেশী পরিবার বিষ খাইয়ে ও লাঠি পেটা করে হত্যা করেছে বিড়ালটিকে।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা বলছেন, ময়না তদন্তের পর সব কিছু পরিস্কার হবে। তারপরই পরবর্তী করণীয় ঠিক করবেন তারা।

সিরাজদিখানের ফুরশাইল গ্রামের ১৩ বছরের আছিয়া আক্তারের সঙ্গী পোষা দুই বিড়াল লিলি ও কিকি। গত রোববার দুপুরে হঠাৎ করেই মৃত্যু হয় লিলির।

আছিয়ার মা আকলিমা আক্তার শারমিন বলছেন, সম্পত্তি নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে প্রতিবেশি মুনসুর, তার মা তাসলিমা আক্তার ও বোন সেলিনা মিলে পোষা বিড়াল লিলিকে হত্যা করেছে।

অন্য প্রতিবেশীরাও তার কথায় সায় দিয়েছেন, তারা বলেন মুনসুরদের ঘরের দিক থেকে প্রচণ্ড আহত অবস্থায় লিলিকে সবশেষ আসতে দেখা গেছে।

এ ঘটনায় মাকে সঙ্গে নিয়ে থানায় হাজির হন আছিয়া আক্তার। পোষা বিড়াল হত্যার অভিযোগ এনে বিচারের দাবি উঠান  কিশোরী। তিন জনের নামে থানায় অভিযোগও করেছেন।

আছিয়া দাবি করেন, প্রথমে পুলিশ বিষয়টি নিয়ে হাসি-ঠাট্টা করে। পরে তার মা সিরাজদিখান থানায় এসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশও অভিযোগটি আমলে নিয়েছে।

সিরাজদিখান থানার ওসি একেএম মিজানুল হক অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিড়ালটিকে ময়নাতদন্তের জন্য উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, বিড়ালকে কে বা কারা হত্যা করেছে তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে অভিযোগকারীর দাবি পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিবেশীরা তার বিড়াল হত্যা করেছে।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা শবনম সুলতানা বলেন, বিড়ালটি মৃত অবস্থায় আমাদের এখানে আনা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য এটি আমাদের অফিসে রয়েছে।

এদিকে জানা যাচ্ছে, অভিযোগ দায়েরের পর থেকে প্রতিবেশী মুনসুরদের ঘরে তালা ঝুলছে।

1
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.