The Rising Campus
News Media

স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত শেখের।

নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে অবশেষে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে ৫৫ বছর বয়সী বেলায়েত শেখের। উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য রাজধানীর একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছেন তিনি। গতকাল রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন বেলায়েত।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার বিষয়টি বেলায়েত শেখ নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, রাজধানীর বেসরকারি স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের কলাবাগান শাখায় সাংবাদিকতা বিভাগে ভর্তি হয়েছেন বেলায়েত। ভর্তি হতে তার ১৫ হাজার ৬০০ টাকা লেগেছে। গাজীপুর থেকে এসেই ক্লাস করবেন তিনি। আজ সোমবার দুপুর ২টায় বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে তার প্রথম ক্লাস।

বেলায়েত জানান, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে। গতকালই স্টেট ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হয়েছি। আমার বাবা না থাকায় ভর্তির সময় বাবার দায়িত্ব পালন করেছেন, আমার ভাতিজা উপসচিব ডক্টর এস এম সেলিম রেজা।

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, অনেকগুলো কারণে আমি এখানে ভর্তি হয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমার টিউশন ফি’র ওপর ৬০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে। এছাড়া আমি বাড়ি থেকে ক্লাস করতে পারব। এসব কারণেই এখানে ভর্তি হয়েছি।

জানা গেছে, বেলায়েতের শৈশব কাটে অভাব-অনটনে। পরিবারের অভাব-অনটনের মধ্যেও চালিয়ে যান পড়াশোনা। বেলায়েত বলেন, পরিবারে ছিল অভাব। লেখাপড়ার খরচ ঠিক মতো দিতে পারতো না। ১৯৮৩ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলাম। তখন ফরম ফিলাপের জন্য যে টাকা ছিল তা দিয়ে বাবার চিকিৎসা করাতে হয়েছিল। এরপর আবার প্রস্তুতি। ১৯৮৮ সালে ফের এসএসসি পরীক্ষা দেওয়া কথা থাকলে সেবছর বন্যার কারণে বসা হয়নি মাধ্যমিকের এই পরীক্ষা। পরে ১৯৯০-৯২ সালের দিকে আবারও প্রস্তুতি নেওয়া হলেও মায়ের অসুস্থতার জন্য আর সম্ভব হয়নি। এসময় সংসারের হাল ধরেন বেলায়েত।

বেলায়েতের তিন সন্তান। বড় ছেলে এলাকার একটি কলেজের স্নাতকে পড়ছেন। মেয়েকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ানো স্বপ্ন ছিল তার। এজন্য রাজধানীর একটি কলেজে ভর্তি করান। কিন্তু সে পড়াশোনা শেষ না করেই গ্রামে চলে যায়। সেখানে এইচএসসি শেষে একটি কলেজের স্নাতকের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হয়।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.