৬-০ গোলে পেরুকে উড়িয়ে দিল ব্রাজিল

চলমান কোপা আমেরিকায় দুর্দন্ত গতিতে ছুটে চলছে ব্রাজিল নারী ফুটবল দল। তাদের রুখে দেয়ার যেন কেউ নেই। গ্রুপ পর্বের চার ম্যাচের চারটিতেই জিতেছে কোপার ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দলটি। সবার আগে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা ব্রাজিল গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পেরুকে রীতিমতো গোল বন্যায় ভাসিয়েছে। ৬-০ গোলে জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে হ্যাটট্রিক ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা।

নারী কোপা আমেরিকার ‘বি’ গ্রুপের নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয় ব্রাজিল ও পেরু। শুক্রবার (২২ জুলাই) বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় কলম্বিয়ার এস্তাদিও পাসকুয়াল গুয়েরেরো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় ম্যাচটি। ব্রাজিল ও পেরু দুই দলের জন্যই ম্যাচটি কেবলই নিয়ম রক্ষার। কারণ ব্রাজিল আগেই নিজেদের তিন ম্যাচের তিনটিতেই জিতে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে।

অপরদিকে পেরুও নিজেদের তিন ম্যাচের তিনটিতেই হেরে সবার আগে ছিটকে পড়ে। তাই উভয় দলের কাছে ম্যাচটি ছিল কেবলই নিয়ম রক্ষার।

ম্যাচ শুরু প্রথম মিনিটেই পেরুর জালে বল জড়ায় ব্রাজিল। গেইসের কাছ থেকে পাওয়া পাসে দলের প্রথম গোলটি করেন দুদা। ১৪ মিনিটের মাথায় আবারও গেইসের পাস। এবার দলের দ্বিতীয় গোলটি আসের দুদা সাম্পাইওর থেকে।

ম্যাচের ৪১ মিনিট থেকে ৪৪ মিনিটের মধ্যে দুইটি গোল পায় সাতবারের কোপা চ্যাম্পিয়নরা। দলের তৃতীয় গোলটি আসে গেইস ফেরেরার পা থেকে। এরপর আদাইলমার গোল একহালি পূর্ণ করে বিরতিতে যায় দুই দল। ৪৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোরটি করেন আদাইলমা।

প্রথমার্ধে ৪-০ গোলে এগিয়ে থাকা ব্রাজিল দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমেই আবারও পায় গোলের দেখে। ৪৮ থেকে ৫০ মিনিটের মধ্যে আরও দুই গোল করে ব্রাজিল। ফে পালেরমোর পর ম্যাচের শেষ গোলটি করেন আদ্রিয়ানা লিল দ্য সিলভা।

এর আগে আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে ও ভেনিজুয়েলাকে উড়িয়ে সবার আগে সেমির টিকিট নিশ্চিত করে ব্রাজিল। বি গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠৈছে আর্জেন্টিনাও।

আগামী ২৭ জুলাই টুর্নামেন্টের প্রথম সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে ব্রাজিলের মোকাবিলা করবে পেরাগুয়ে। ২০০৬ সালের পর দ্বিতীয়বারের মতো কোপার সেমিফাইনাল খেলবে পেরাগুয়ে।