The Rising Campus
News Media

১৪তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা ৪৮৩ জন নিবন্ধনধারীকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) ১৪তম নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৪৮৩ জন নিবন্ধনধারীকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে নির্দেশ দিয়ে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। পৃথক তিনটি রিটের চূড়ান্ত শুনানি শেষে বিচারপতি কাশেফা হোসেন ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বুধবার এ রায় দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মো. মনিরুজ্জামান আসাদ ও মো. ফারুক হোসেন। এনটিআরসিএর পক্ষে আইনজীবী কামরুজ্জামান ভূইয়া শুনানিতে ছিলেন।

রিট আবেদনকারীদের অন্যতম আইনজীবী মো. মনিরুজ্জামান আসাদ বলেন, ১৪তম নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৪৮৩ জন নিবন্ধনধারী ও রিট আবেদনকারী রায়ের অনুলিপি পাওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে এনটিআরসিএকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে বলে জানান এনটিআরসিএর আইনজীবী কামরুজ্জামান ভূইয়া।

রিট আবেদনকারীপক্ষ জানায়, ২০১৭ সালে ১৪তম বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা হয়। প্রিলিমিনারি, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা শেষে ২০১৮ সালের ২৭ নভেম্বর উত্তীর্ণ (বেসরকারি মাধ্যমকি, উচ্চমাধ্যমিক ও মাদ্রাসা) ১৮ হাজার ৩১২ জনের তালিকা প্রকাশ করা হয়। ১৪তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ অনেকে নিয়োগ পান, তবে অনেকে নিয়োগের সুপারিশ থেকে বঞ্চিত হন। এ অবস্থায় নিবন্ধনধারী ৪৮৩ ব্যক্তি ২০২১ সালে হাইকোর্টে পৃথক তিনটি রিট করেন। প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত বছর আদালত রুল দেন। রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে আজ রায় দেওয়া হয়।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.