হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ফ্রি অনলাইন কোর্সের সুযোগ

বিশ্বের অন্যতম বিদ্যাপিঠ আমেরিকার প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয় হার্ভার্ডে পড়ালেখার সুযোগ মিলছে প্রায় সবার। অন্যতম এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইচ্ছা করলেই পড়তে পারবেন যে কেউ। এ জন্য পকেট থেকে খসবে না এক কানাকড়িও। অনেক বিশ্ববিদ্যালয় ও বাণিজ্যিক সংস্থাও এই মুহূর্তে অনলাইন কোর্স করাচ্ছে।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বজুড়ে ঘরবন্দী শিক্ষার্থীদের এ সুযোগ দিচ্ছে অনলাইন কোর্সের মাধ্যমে। বিভিন্ন বিষয়ের ৫৫টি কোর্স অনলাইনে পড়ার সুযোগ দিচ্ছে তারা। এ পড়াশোনার জন্য লাগবে না কোনোও ডিগ্রিগত যোগ্যতাও। সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে বাড়িতে বসে যে কেউ করতে পারবেন এসব কোর্স। তবে শুধু পড়া শেষে সার্টিফিকেট পেতে গেলে লাগবে অর্থ।

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন কোর্সগুলোর মধ্যে রয়েছে কম্পিউটার সায়েন্স, হেলথ অ্যান্ড মেডিসিন, ম্যাথামেটিকস, প্রোগ্রামিং, এডুকেশন অ্যান্ড ট্রেইনিং, আইটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট, বিজনেস, ডেটা সায়েন্স, হিউম্যানিটিজ, কম্পিউটার সায়েন্স, সোশ্যাল সায়েন্স-সংক্রান্ত বিবিধ বিষয়। কোর্সগুলোর সময়সীমা ৪ থেকে ১৫ সপ্তাহের। কোর্সগুলোর কারিকুলাম তৈরি করেছেন হার্ভার্ডের সেরা শিক্ষকেরাই।

তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক পাঠ্যক্রমগুলোতে টু-ডি এবং থ্রি-ডি গেম ডেভেলপমেন্ট থেকে বিভিন্ন ওয়েব ও মোবাইল অ্যাপের প্রযুক্তি শেখার ব্যবস্থা রয়েছে। বিজনেস বিভাগে ইমার্জিং ইকোনমিকস, কন্ট্রাক্ট ল এবং অ্যাকাউন্টিং ও ফিন্যান্সিয়াল স্টেটমেন্ট বিষয়ে তিনটি প্রাথমিক কোর্স রয়েছে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ও মেশিন লার্নিংয়ের এই যুগে ১৪টি অনলাইন কোর্স করাচ্ছে হার্ভার্ড ডেটা সায়েন্স বিভাগ।

করোনাভাইরাস মহামারির পরিপ্রেক্ষিতে অন্য মহামারি-সংক্রান্ত কোর্স করাচ্ছে হার্ভার্ডের হেলথ অ্যান্ড মেডিসিন বিভাগ। পড়া যাবে ম্যালেরিয়া নিয়েও।

চীন ও কমিউনিজম এবং আধুনিক চীন-তাইওয়ান, হংকং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাইলেও, সে ব্যবস্থা রেখেছে ১৬৩৬ সালে প্রতিষ্ঠিত এ বিশ্ববিদ্যালয়। আছে শেক্‌সপিয়ার নিয়ে পড়ার আয়োজনও।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে পৃথিবী বদলে যাচ্ছে। হার্ভার্ডের অনলাইন কোর্সগুলোয় সেই প্রতিফলন আছে। আগামী বিশ্বে তথ্যপ্রযুক্তি ও ডেটা সায়েন্সই হতে পারে প্রধানতম বিজ্ঞান। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সহায়তা ছাড়া মানুষ হয়তো এক পা-ও এগোতে পারবে না।

এদিকে কোভিড-১৯ প্রচলিত স্বাস্থ্যসেবার ভাবনাকে একেবারেই বদলে দিচ্ছে। প্রয়োজনে অন্য মহামারিগুলো সম্পর্কে ওয়াকিবহাল থাকার কোর্সও আছে। বদলে যাওয়া বিশ্বের অর্থনীতি ও বাণিজ্যকেও বুঝতে চাওয়ার জন্য কোর্স করাচ্ছে হার্ভার্ড।