The Rising Campus
News Media
বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

স্মার্ট হতে চান? তাহলে এই অভ্যাসগুলো থাকতেই হবে

আপনার প্রতিদিন নিশ্চয়ই বহু মানুষের সঙ্গে দেখা হয় । আপনি ভাবছেন এদের মধ্যে যাদের জ্ঞান বেশি তারােই স্মার্ট মানুষ। একই সঙ্গে, এই জাতীয় ব্যক্তিরাও নিজেদের অন্যদের চেয়ে বেশি স্মার্ট মনে করেন। কিন্তু জেনে অবাক হবেন, যারা সব কিছু জানেন বা বুঝেন তারা জ্ঞানী হলেও স্মার্ট নন।

কয়েকটি গবেষণায় সম্প্রতি এমনই চমকপ্রদ তথ্য উঠে এসেছে। চলুন তাহলে জেনে নেই, কী আছে এসব গবেষণায়-

১। প্রকৃত স্মার্ট তারাই যারা মনে করেন, আমি সবকিছু জানি না। পাশাপাশি তারা নতুন কিছু শিখতে চান। সদ্য প্রকাশিত জার্নাল অফ ইনডিভিজুয়াল ডিফারেন্সের গবেষণায় দেখা গেছে, যে সব শিশুরা আইকিউ পরীক্ষায় বেশি স্কোর করেছে তারা অন্য আরও বিষয়ে কৌতূহলী এবং নতুন ধারণার জন্য উন্মুখ।

যারা বুদ্ধিমান তারা কেবল দৈনন্দিন জিনিসগুলো সম্পর্কেই কৌতূহলী নয় বরং জীবন এবং মহাবিশ্বের মতো দার্শনিক বিষয়গুলো সম্পর্কেও জানতে আগ্রহী।

২। স্মার্ট ব্যক্তিরা সবকিছুর অন্যান্য দিক গুলোতেও মনোযোগ দেয়। তারা মনে করে না যে শুধুমাত্র তারাই সঠিক, অন্যরা ভুল। এই ধরনের লোকেরা অন্যদের ধারণাগুলোকে স্বাগত জানায় এবং সেগুলো বোঝার মাধ্যমে নতুন জিনিস শেখার ইচ্ছা পোষন করে।

৩। বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন, আপনি যদি নিজের সব কাজের বিচার করতে পারেন এবং আবেগপূর্ণ সিদ্ধান্ত না নেন, তাহলে আপনি সত্যিই একজন স্মার্ট ব্যক্তি। অর্থাৎ আপনার নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ থাকলে আপনি নিজেকে স্মার্ট বলতেই পারেন।

পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বুদ্ধিমান ব্যক্তিরা অন্যের চিন্তাভাবনাও বোঝেন।

ব্রিটিশ জার্নাল অফ সাইকোলজি অনুসারে, যারা একা থাকেন তারা বেশি সন্তুষ্ট হন। অন্যদিকে, আপনি যদি নিজের সঙ্গে কথা বলেন, তবে এটিও স্মার্ট হওয়ার লক্ষণ।

বিদেশী জার্নাল অনুসারে।
1
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. লাইফ স্টাইল
  3. স্মার্ট হতে চান? তাহলে এই অভ্যাসগুলো থাকতেই হবে

স্মার্ট হতে চান? তাহলে এই অভ্যাসগুলো থাকতেই হবে

আপনার প্রতিদিন নিশ্চয়ই বহু মানুষের সঙ্গে দেখা হয় । আপনি ভাবছেন এদের মধ্যে যাদের জ্ঞান বেশি তারােই স্মার্ট মানুষ। একই সঙ্গে, এই জাতীয় ব্যক্তিরাও নিজেদের অন্যদের চেয়ে বেশি স্মার্ট মনে করেন। কিন্তু জেনে অবাক হবেন, যারা সব কিছু জানেন বা বুঝেন তারা জ্ঞানী হলেও স্মার্ট নন।

কয়েকটি গবেষণায় সম্প্রতি এমনই চমকপ্রদ তথ্য উঠে এসেছে। চলুন তাহলে জেনে নেই, কী আছে এসব গবেষণায়-

১। প্রকৃত স্মার্ট তারাই যারা মনে করেন, আমি সবকিছু জানি না। পাশাপাশি তারা নতুন কিছু শিখতে চান। সদ্য প্রকাশিত জার্নাল অফ ইনডিভিজুয়াল ডিফারেন্সের গবেষণায় দেখা গেছে, যে সব শিশুরা আইকিউ পরীক্ষায় বেশি স্কোর করেছে তারা অন্য আরও বিষয়ে কৌতূহলী এবং নতুন ধারণার জন্য উন্মুখ।

যারা বুদ্ধিমান তারা কেবল দৈনন্দিন জিনিসগুলো সম্পর্কেই কৌতূহলী নয় বরং জীবন এবং মহাবিশ্বের মতো দার্শনিক বিষয়গুলো সম্পর্কেও জানতে আগ্রহী।

২। স্মার্ট ব্যক্তিরা সবকিছুর অন্যান্য দিক গুলোতেও মনোযোগ দেয়। তারা মনে করে না যে শুধুমাত্র তারাই সঠিক, অন্যরা ভুল। এই ধরনের লোকেরা অন্যদের ধারণাগুলোকে স্বাগত জানায় এবং সেগুলো বোঝার মাধ্যমে নতুন জিনিস শেখার ইচ্ছা পোষন করে।

৩। বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন, আপনি যদি নিজের সব কাজের বিচার করতে পারেন এবং আবেগপূর্ণ সিদ্ধান্ত না নেন, তাহলে আপনি সত্যিই একজন স্মার্ট ব্যক্তি। অর্থাৎ আপনার নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ থাকলে আপনি নিজেকে স্মার্ট বলতেই পারেন।

পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বুদ্ধিমান ব্যক্তিরা অন্যের চিন্তাভাবনাও বোঝেন।

ব্রিটিশ জার্নাল অফ সাইকোলজি অনুসারে, যারা একা থাকেন তারা বেশি সন্তুষ্ট হন। অন্যদিকে, আপনি যদি নিজের সঙ্গে কথা বলেন, তবে এটিও স্মার্ট হওয়ার লক্ষণ।

বিদেশী জার্নাল অনুসারে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন