সাবেক সাংসদ পাপুলের পক্ষে রিট করায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে অব্যাহতি

লক্ষ্মীপুর-২ (রায়পুর) আসনের সাবেক সাংসদ শহিদ ইসলাম ওরফে পাপুলের পক্ষে হাইকোর্টে রিট করার অভিযোগে এক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শাহাদাত হোসেন ওরফে লিটনকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ এ সিদ্ধান্ত নেয়।

রায়পুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক তানভীর হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক সালাউদ্দিন আহমেদ, মুরাদ হোসেন মিয়াজী ও মো. জামাল স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, শাহাদাত হোসেন দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন। এ কারণে উপজেলা কমিটি জরুরি বৈঠকে তাঁকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক তানভীর হায়দার চৌধুরী বলেন, লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণাকে অবৈধ এবং সাবেক সাংসদ শহিদ ইসলামের সদস্যপদ রক্ষার জন্য সম্প্রতি তাঁর বোন নুরুন্নাহার বেগম ও লিটন হাইকোর্টে রিট করেছিলেন। শুনানির পর গত সোমবার আদালত রিটটি সরাসরি খারিজ করে দেন। পাপুলের পক্ষ নেওয়ার কারণেই লিটনকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। সংসদ নির্বাচনে লিটন পাপুলের প্রস্তাবকারী ছিলেন।

তবে শাহাদাত হোসেন আজ বলেন, ‘অব্যাহতির কথা শুনেছি। তবে কাগজ আমি হাতে পাইনি। আমি শহিদুল ইসলামের মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় প্রস্তাব করেছিলাম। তাঁর আসন শূন্য ঘোষণার বিরুদ্ধে তাঁর স্বজনেরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হন। এতে আমাকেও বাদী হিসেবে রাখা হয়। আদালতে আপিল করা তো কোনো অন্যায় নয়।’

লক্ষ্মীপুর-২ আসনে ২১ জুন উপনির্বাচন হবে ইভিএমে। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুর উদ্দিন চৌধুরী ও জাতীয় পার্টির শেখ ফায়িজ উল্যা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। কুয়েতে গ্রেপ্তারের পর এ আসনের সাংসদ পাপুলের সাজা হওয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।