সাত কলেজের মাস্টার্স শেষ পর্বের পরীক্ষার ফল সংশোধন করা হচ্ছে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত রাজধানীর সরকারি সাত কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মাস্টার্স শেষ পর্বের চূড়ান্ত পরীক্ষার প্রকাশিত ফল সংশোধন করে পুনরায় প্রকাশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বাহালুল হক চৌধুরী সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাত কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মাস্টার্স শেষ পর্ব পরীক্ষার ফলাফল ইতােমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত ফলাফলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুসরণ করা হয়। পরবর্তীতে উক্ত শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে, আলােচ্য শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স কোর্সে ভর্তি হয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী অনার্স ডিগ্রি অর্জন করে। যেহেতু এই শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ভর্তিকৃত এবং অনার্স ডিগ্রি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুয়ায়ী অর্জন করেছে সেজন্য তাদের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মাস্টার্স শেষ পর্ব পরীক্ষার ফলও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী সংশােধন করে প্রকাশ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এতে আরও বলা হয়, তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণে আরাে উল্লেখ করা যাচ্ছে যে, পরবর্তী ২০১৮-১৯, ২০১৯-২০ এবং ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের মাস্টার্স শেষ পর্বের ফলাফল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুযায়ী প্রকাশ করা হবে।

এছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সরাসরি তত্ত্বাবধানে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে অনার্স কোর্সে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ফল প্রকাশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুসৃত হচ্ছে এবং উক্ত শিক্ষার্থীদের মাস্টার্স ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষ হতে মাস্টার্স কোর্সের ফলাফল প্রকাশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিমালা অনুসরণ করা হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়। অধিভুক্তির পর থেকে এসব কলেজের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সম্পর্কিত বিষয়গুলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ই দেখভাল করছে।