সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে ক্লাস চালুর প্রস্তাব ইউজিসির

মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ১৪ মাসের বেশি সময় দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এরই মধ্যে হতাশা অনিশ্চয়তায় থাকা শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি তুলতে শুরু করেছেন। এই দাবিতে সুর মিলিয়েছেন শিক্ষকেরাও।

এ বিষয়ে আগামীকাল বুধবার সভা ডেকেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সংবাদ সম্মেলনে আসবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি। এ আগেই দেশের উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খোলার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে মতামত পাঠিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। সেখানে ইউজিসি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাড়ে তিন লাখ শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে ক্লাস চালুর প্রস্তাব দিয়েছে বলে জানা গেছে। এ ক্ষেত্রে আবাসিক এক লাখ ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ ছাড়াও শিক্ষা ব্যবস্থার ক্ষতি বিবেচনায় এবং করোনা সংক্রমণের হার কমে আসা বিভিন্ন অঞ্চলে স্কুল-কলেজ খোলার বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কম সংক্রমণের জেলা ও উপজেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো এক্ষেত্রে প্রাধান্য দেওয়া হতে পারে।

আর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের যারা হলে থাকেন তাদের আগে টিকার আওতায় এনে তারপর ক্লাস শুরুর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আবাসিক পর্যায়ে কতজন শিক্ষার্থী রয়েছে তার আপডেট তালিকা মন্ত্রণালয়কে পাঠানো হয়েছে। একইসঙ্গে অনাবাসিক শিক্ষার্থীর সংখ্যাও পাঠানো হয়েছে।