শতবর্ষী ১৩ সরকারি কলেজে এবার ভর্তি পরীক্ষা হচ্ছে না

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত দেশের ১৩টি শতবর্ষীসহ বেশ কয়েকটি ঐতিহ্যবাহী কলেজে এবার ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার চিন্তা-ভাবনা ছিল। এ নিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) নীতিনির্ধারকদের নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা হলেও চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে চলতি ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে তা আয়োজন সম্ভব হচ্ছে না। ফলে এসব কলেজে এবারও এসএসসি ও এইচএসসির ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি নেওয়া হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান বলেন, একটা বিষয় আমাদের ভাবনায় ছিল, ১৩টি শতবর্ষী কলেজে পরীক্ষা নেওয়ার। এটির পরিকল্পনা ছিল আমাদের কিন্তু চলমান করোনা পরিস্থিতি আমরা সেটা থেকে সরে এসেছি। এসব কলেজেও এবার ফলের ভিত্তিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। তবে আগামীতে শতবর্ষী কিংবা ৫০ বছরের বেশি বয়সের কলেজে আলাদা পরীক্ষা নিয়ে ভর্তি করা হবে— সেটি আমাদের ভাবনায় রয়েছে।

১৩টি শতবর্ষী কলেজ হচ্ছে- রাজশাহী কলেজ, চট্টগ্রাম কলেজ, সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ, চট্টগ্রাম, নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ, বরিশাল, মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ, সিলেট, এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ, সরকারি ব্রজলাল (বিএল) কলেজ, খুলনা, আনন্দ মোহন কলেজ, ময়মনসিংহ, কারমাইকেল কলেজ, রংপুর, সরকারি প্রফুল্ল চন্দ্র (পিসি) কলেজ, বাগেরহাট, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ, ফরিদপুর।

তবে রাজধানীর ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ শতবর্ষী হলেও এসব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত। তাই ঢাবি থেকে এসব কলেজে আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষা ও শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

অন্যদিকে, ৮টি প্রাক-মডেল কলেজের মধ্যে রয়েছে- ঢাকা কমার্স কলেজ, সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ, লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, লালমনিরহাটের উত্তরবাংলা কলেজ, বগুড়ায় সৈয়দ আহম্মদ কলেজ, টাঙ্গাইলে সখিপুর রেসিডেন্সিয়াল মহিলা কলেজ, কুষ্টিয়ায় দৌলতপুর কলেজ ও কিশোরগঞ্জে রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ।

জানা গেছে, গত বছরের ডিসেম্বরে দেশের ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গে এসব কলেজ যুক্ত হতে চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসিতে চিঠি দেয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরবর্তীতে এ নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা হলেও করোনা পরিস্থিতিতে বেশিদূর এগোতে পারেনি। তবে আগামীতে গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিনির্ধারকরা।