শঙ্কার মধ্যেও বিশ্বকাপের ৯ ভেন্যুর খসড়া তালিকা দিল ভারত

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ৯ ভেন্যুর খসড়া তালিকা প্রকাশ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ হলেও, প্রস্তুতি চালিয়ে যেতে চায় বিসিসিআই। তবে বোর্ডের মহাব্যবস্থাপক ধিরাজ মালহোত্রা জানিয়েছেন, বিশ্বকাপ আরব আমিরাতে হলেও, আয়োজক থাকবে ভারতই।

ভারত জুড়ে হাহাকার। মৃত্যুর মিছিল। করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা দেশ। শুক্রবারও (৩০ এপ্রিল) মারা গেছে সাড়ে তিন হাজার মানুষ। আক্রান্ত হয়েছে প্রায় সাড়ে চার লাখ। এর মাঝে ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে। কিন্তু, পেশাদার যুগে মৃত্যুদূতকে দরজায় রেখেই ক্রিকেট দুনিয়ায় আলোচনায় টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসর।

অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টি। কিন্তু, দেশটির করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যথাসময়ে তা আয়োজন নিয়ে সন্দিহান অনেকেই। যদিও বিসিসিআই এখনও হাল ছাড়তে নারাজ। মুম্বাই, চেন্নাই, কলকাতা, দিল্লি, ধর্মশালা, ব্যাঙ্গালুরু, হায়দ্রাবাদ, লক্ষ্নৌ ও আহমেদাবাদের কর্তৃপক্ষকে প্রস্তুতি অব্যাহত রাখতে বলা হয়েছে।

বিসিসিআই কর্মকর্তা নয়টি ভেন্যুকে জানানো হয়েছে। তাদের প্রস্তুতি চালিয়ে যেতে বলা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি এখন ভালো না। তবে, আমরা বিশ্বকাপের এত আগে সিদ্ধান্ত নিতে চাই না।

তবে, প্ল্যান বি’এর কাজও এগিয়ে রাখতে হচ্ছে ভারতীয় বোর্ডকে। ১৬ দলের মেগা আসর ভারতে আয়োজন সম্ভব না হলে মেগা আসর হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। দেশটির ৪টি গ্রাউন্ড আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য প্রস্তুত। প্রয়োজনে যে সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে। তবে, খেলা আমিরাতে হলেও, হোস্ট রাইটস থাকবে গাঙ্গুলির নেতৃত্বাধীন বোর্ডের হাতেই।

বিসিসিআই’র মহাব্যবস্থাপক ধিরাজ মালহোত্রা বলেন, ‘কি হবে, সেটা নিশ্চিত করে এখনই বলতে পারছি না। আপাতত পরিকল্পনা হচ্ছে, বিশ্বকাপ সংযুক্ত আরব আমিরাতে হবে। তবে আয়োজক থাকবে ভারতই।’

করোনার কারণে গত বছর ৮ দলের আইপিএল আয়োজন করা হয়েছিলো আরব আমিরাতে। অভিজ্ঞতা থেকেই, প্রয়োজনে সেখানে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে আশাবাদী বিসিসিআই।