The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩

রমজানে ছুটির কথা বলায় প্রাথমিক শিক্ষককে শোকজ

পবিত্র রমজান মাসে ছুটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কথা বলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না সেটি আগামী সাত কর্ম দিবসের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।

ভুক্তভোগী শিক্ষকের নাম মাহবুবর রহমান। তিনি জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার হিন্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

বৃহস্পতিবার জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. রেজোয়ান হোসেন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ওই শিক্ষককে শোকজ করা হয়।

অফিস আদেশে বলা হয়েছে, আপনাকে মৌখিকভাবে এবং জুম মিটিংয়ের মাধ্যমে বারবার সতর্ক করা সত্বেও গতকাল আপনি ফেসবুকে রমজান মাসে পাঠদান সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। এতে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।

আপনি এহেন হীন কার্যকলাপের মাধ্যমে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আইনসংগত আদেশ অমান্য করেছে ২(অ)। আইনসংগিত কারণ ব্যতিরেখে সরকারের আদেশ, পরিপত্র এবং নির্দেশ অবজ্ঞা করেছেন ২(ই)। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মনে বিরুপ মনোভাব সৃষ্টির চেষ্টা করেছেন।

এসব অনিময়মের জন্য কেন আপনার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর ৩(খ) ধারায় অসদাচরনের দায়ে দোষী সাব্যস্থ করে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তা পত্র প্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে তার সন্তোষজনক জবাব দাখিল করতে বলা হলো।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. রেজোয়ান হোসেন বলেন, ওই শিক্ষক সরকারি কর্মচারি আচরণ বিধি লঙ্ঘন করায় তাকে শোকজ করা হয়েছে। জবাব পাওয়ার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. রমজানে ছুটির কথা বলায় প্রাথমিক শিক্ষককে শোকজ

রমজানে ছুটির কথা বলায় প্রাথমিক শিক্ষককে শোকজ

পবিত্র রমজান মাসে ছুটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কথা বলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে না সেটি আগামী সাত কর্ম দিবসের মধ্যে জানাতে বলা হয়েছে।

ভুক্তভোগী শিক্ষকের নাম মাহবুবর রহমান। তিনি জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার হিন্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

বৃহস্পতিবার জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. রেজোয়ান হোসেন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ওই শিক্ষককে শোকজ করা হয়।

অফিস আদেশে বলা হয়েছে, আপনাকে মৌখিকভাবে এবং জুম মিটিংয়ের মাধ্যমে বারবার সতর্ক করা সত্বেও গতকাল আপনি ফেসবুকে রমজান মাসে পাঠদান সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের বিরুদ্ধে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। এতে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।

আপনি এহেন হীন কার্যকলাপের মাধ্যমে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আইনসংগত আদেশ অমান্য করেছে ২(অ)। আইনসংগিত কারণ ব্যতিরেখে সরকারের আদেশ, পরিপত্র এবং নির্দেশ অবজ্ঞা করেছেন ২(ই)। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মনে বিরুপ মনোভাব সৃষ্টির চেষ্টা করেছেন।

এসব অনিময়মের জন্য কেন আপনার বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ এর ৩(খ) ধারায় অসদাচরনের দায়ে দোষী সাব্যস্থ করে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তা পত্র প্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে তার সন্তোষজনক জবাব দাখিল করতে বলা হলো।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. রেজোয়ান হোসেন বলেন, ওই শিক্ষক সরকারি কর্মচারি আচরণ বিধি লঙ্ঘন করায় তাকে শোকজ করা হয়েছে। জবাব পাওয়ার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন