মার্চ থেকেই বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে জাপান

আগামী মার্চ মাস থেকে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য নিজেদের সীমান্ত ‍খুলে দিচ্ছে জাপান। করোনার কারণে দেশটিতে বিদেশি শিক্ষার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিলো এতোদিন। চলতি মাসেই শেষ হবে করোনার কারণে দেয়া এই নিষেধাজ্ঞা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা তার কার্যালয়ে ডাকা এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন। করোনা নিয়ন্ত্রণে সফলতা ও বুস্টার ডোজ টিকা প্রদানের সার্বিক অগ্রগতি বিবেচনায় নিয়ে এমন সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলো জাপান সরকার।

ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় গত বছর নভেম্বর মাসে অনাবাসিক বিদেশিদের জন্য প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছিল দেশটির সরকার। ক্ষমতাসীন জোটের লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি এবং কোমেইতো প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকার বিষয়টি দ্রুত পর্যালোচনা করে দেখার আহ্বান জানানোর প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকার এ ঘোষণা দেয়।

করোনার নতুন ধরন ওমিক্রণে নাকাল পুরো বিশ্ব। দক্ষিণ আফ্রিকার বতসোয়ানা থেকে ছড়িয়ে পড়া এই ধরন খুব দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ে। অন্য ধরনের তুলনায় ওমিক্রণে মৃত্যুর ঝুঁকি কম থাকলেও আক্রান্ত হচ্ছেন লাখ লাখ মানুষ। কিন্তু সম্প্রতি দেখা গেছে আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হার বেড়েছে। এনিয়ে উদ্বে প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

সংস্থার জরুরি বিভাগের প্রধান মাইক রায়ান জানান, সম্প্রতি করোনা সংক্রমণ শনাক্তের হার কমছে। কিন্তু করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। স্বাভাবিকভাবেই মনে প্রশ্ন জাগবে- এই পরিসংখ্যান কি সত্যি? সম্ভাব্য ব্যাখ্যা হলো- কয়েক সপ্তাহ আগে আক্রান্ত রোগীরা বর্তমানে মৃত্যুবরণ করছেন। নতুবা, কমেছে নমুনা পরীক্ষার প্রবণতা। আরও কয়েক মাস নতুন ভ্যারিয়েন্টের বিষয়ে সতর্ক থাকা উচিৎ বলে মনে করেন তিনি।

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আরও ২০ লাখ ১৭ হাজারের বেশি মানুষের শরীরে মিলেছে করোনাভাইরাস। এ নিয়ে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ৪২ কোটি ছাড়ালো। এদিন জার্মানিতে সর্বোচ্চ ২ লাখ ২৭ হাজার মানুষ নতুনভাবে করোনা পজেটিভ হয়েছেন। দেশটিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৪৪ জন। এদিকে, টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দু’হাজারের ওপর প্রাণহানি দেখলো যুক্তরাষ্ট্র। এক লাখের বেশি মানুষের শরীরে মিললো করোনাভাইরাস।