মাঠে ফেরার আগে ফিট থাকতে চান সাইফউদ্দিন

বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি দিনে দিনে ভয়াবহ পর্যায়ের দিকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে করোনার আক্রন্তের সংখ্যা ৯৮ হাজার ৪৮৯ জন অর্থাৎ প্রায় লাখ ছুঁইছুঁই করছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) চাইলেও মাঠে ক্রিকেট ফেরাতে পারছে না। তবে এমন পরিস্থিতিতেও ঘরে বসেই ফিটনেস ধরে রাখার লড়াই করতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের। বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনও নিজেকে ফিট রাখতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

বুধবার (১৭ জুন) সংবাদমাধ্যমে সাউফউদ্দিন জানিয়েছেন, ফিটনসে নিয়ে নিজের ঘরে থেকেই কীভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। জানালেন, ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে বলে ফিটনেস নিয়ে কাজ করা বন্ধ করা যায় না। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে সেটা উচিতও নয়। তাই চেষ্টা করছেন ফিটনেস ঠিক রাখার।

সাইফউদ্দিন বলেন, ‘মাঠে খেলা নেই বলে তো আর বসে থাকলে চলবে না। আমরা পেশাদার ক্রিকেটার, সবসময়ই নিজেকে ফিট থাকতে হয়। যে কোনো সময় খেলা ফিরলেই যেন নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পারি। তবে এটা সত্যি কথা যে ব্যাটিং, বোলিং করার সুযোগ হচ্ছে না। তবে রানিং, ফ্রি-হ্যান্ড সবই করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনা ভাইরাস মহামারি যখন শুরু হলো তখন থেকেই ফিটনেস নিয়ে বাসাতেই কাজ করছি। এর মাঝে আবার কিছুদিন বোলিংও করেছি। কিন্তু একটা সময় বুঝতে পারলাম যে মাঠটা অমসৃণ, ইনজুরির ঝুঁকি রয়েছে। তখন ভয়ে বোলিং ছেড়ে দিয়েছি। গত তিনদিন যাবৎ এখানে বৃষ্টি হচ্ছে, চাইলেও এখন মাঠে যেতে পারছি না। তাই বাসার ভেতরেই ফিটনেস নিয়ে কাজ করছি। সিঁড়ি দিয়ে দৌড়ে ছাদে উঠি, বাসার ভেতর বা বারান্দায় ফ্রি-হ্যান্ড করি। এভাবেই চলছে। যতদিন মাঠে ফিরতে না পারছি, এভাবেই চলতে হবে।’