ভার্চ্যুয়ালি উদ্যাপিত হবে ‘বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস’

শিশুদের শব্দ করে পড়া উৎসাহিত করতে বিভিন্ন দেশে পালিত হয় ‘বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস’। প্রতি বছরের মতো এবারও ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) নানা কর্মসূচিতে দিবসটি পালন করতে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘রিড অ্যালাউড বাংলাদেশ’। তবে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশে ‘বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস-২০২২’ উদ্যাপিত হবে ভার্চ্যুয়ালি।

এ বছর ‘বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস’-এর কর্মসূচিতে থাকছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষাবিদ, শিশু বিশেষজ্ঞ, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে ভার্চ্যুয়াল প্ল্যাটফর্মে সেমিনার ও শিশুদের নিয়ে উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা। আলোচনায় বক্তারা শব্দ করে পড়ার তাৎপর্য তুলে ধরবেন। এ ছাড়া এই সংস্কৃতি হারিয়ে যাওয়ায় শিশুদের মনোজগতে কী ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে তাও তাঁদের বক্তব্যে উঠে আসবে।

উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আগ্রহী শিক্ষার্থীকে ‘রিড অ্যালাউড বাংলাদেশ’-এর ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজে দেওয়া লিংকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। নিবন্ধনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৫০ জন পাবেন রিড অ্যালাউড বাংলাদেশ-এর স্থায়ী সদস্য পদ। পরবর্তীতে তাদের নিয়ে বছরব্যাপী ‘শব্দ করে পড়া’ বিষয়ক ক্যাম্পেইনে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে।

ওয়েবিনারে রিড অ্যালাউড বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রূপক সিংহের সভাপতিত্বে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সাংসদ পংকজ দেবনাথ, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মো. ওমর ফারুক প্রমুখের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

এ বছরের আয়োজন প্রসঙ্গে রিড অ্যালাউড বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা রূপক সিংহ বলেন, ‘বেশ বড় পরিসরে দেশব্যাপী এবার বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস উদ্যাপনের পরিকল্পনা ছিল আমাদের। কিন্তু করোনা মহামারির কারণে এবারের আয়োজন শুধু ভার্চ্যুয়ালিতে সীমাবদ্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের লক্ষ্য “শব্দ করে পড়ি, নিজেকে আবিষ্কার করি” এই স্লোগান দেশের প্রতিটি প্রান্তে শিশু ও অভিভাবকদের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া।’