ভর্তি পরীক্ষা করোনা সংক্রমণ না কমায় তারিখ নির্ধারণ করতে পারছে না বুয়েট

লমান কঠোর লকডাউন তুলে নেয়া হলেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ না কমায় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের লেভেল-১, টার্ম-১ এর ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করতে পারছে না বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)। এর আগে কঠোর লকডাউনের কারণে গত ২২ জুন ভর্তি পরীক্ষা অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করেছিল বুয়েট।

বুয়েট ভর্তি পরীক্ষা সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, লকডাউন শিথিল করার পর বুয়েট উপাচার্যসহ বিভিন্ন বিভাগের ডিন, অধ্যাপকরা সশীরে অফিস করছেন। তবে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে কোনো বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়নি। করোনা সংক্রমণ না কমায় ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা নিয়ে দ্বিধায় রয়েছে আয়োজক কমিটি।

সূত্র জানায়, ভর্তি পরীক্ষার্থীদের করোনা ভ্যাকসিন না দেয়ায় পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ও পরীক্ষার্থীদের করোনায় আক্রান্ত হবার শঙ্কা রয়েছে। ভর্তি পরীক্ষায় যারা দায়িত্ব পালন করবেন তাদের নিরাপত্তাসহ ভর্তি পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার বিষয় রয়েছে। সেজন্য এই মুহূর্তে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারছে না বুয়েট

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) রাতে বুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. সত্য প্রসাদ মজুমদার বলেন, ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে আমাদের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির কোনো বৈঠকও হয়নি। বৈঠক না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, সরকার সবকিছু বিবেচনায় লকডাউন শিথিল করেছে। তবে সংক্রমণ পরিস্থিতি খারাপ হলে আবারও লকডাউন দেয়া হতে পারে৷ এছাড়া করোনা সংক্রমণ তেমন একটা কমে আসেনি। এই অবস্থায় আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। পরিস্থিতি কোন দিকে যায় সেটি দেখেই ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২২ জুন একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ওইদিন এক বিজ্ঞপ্তিতে বুয়েট জানায়, প্রিলিমিনারি পরীক্ষার অন্তত ১০ দিন আগে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ জানানো হবে।

করোনার কারণে এবার দুই ধাপে ভর্তি পরীক্ষা নেবে বুয়েট। প্রথম ধাপে এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রাকনির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের নিয়ে বুয়েট ক্যাম্পাসে চূড়ান্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।