বিয়ের আগে নারী-পুরুষের রক্তের গ্রুপ জানা উচিত কেন?

বিয়ের আগে নারী-পুরুষ উভয়েরই শারীরিক ও মানসিক প্রস্তুতি নিতে হয়। তবে শারীরিক প্রস্তুতির ক্ষেত্রে রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা করে নেয়াটা অবশ্যই জরুরি। কেননা উভয়ের রক্তের গ্রুপের ভবিষ্যতের ভাল-মন্দ মিশ্রিত রয়েছে।

স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ
স্বামীর রক্তের গ্রুপ যদি পজিটিভ হয় তাহলে স্ত্রীর পজিটিভ হতে হবে। তবে স্বামীর গ্রুপ যদি পজিটিভ হয় তাহলে কোনোভাবেই স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ নেগেটিভ হওয়া চলবে না। আর যদি স্বামীর রক্তের গ্রুপ নেগেটিভ হয় তাহলে স্ত্রীর পজিটিভ বা নেগেটিভ যেকোনো একটি হলেই হবে। এক্ষেত্রে স্ত্রীর গ্রুপ যদি নেগেটিভ হয় তাহলে তার স্বামীর রক্তের গ্রুপও নেগেটিভ হলে অনেক সমস্যা এড়ানো যাবে।

হেপাটাইটিস-বি
হেপাটাইটিস-বি মারাত্মক সংক্রামক ব্যাধি । পাত্র বা পাত্রী যে কোনো একজনের দেহে এ ভাইরাস থাকলে অন্যজনের আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। সেই সঙ্গে অনাগত সন্তানের মধ্যেও রোগটি সংক্রমিত হতে পারে। এটি অন্যতম এক ঘাতক ব্যাধি। তাই বিয়ের আগেই রক্ত পরীক্ষা করিয়ে নিশ্চিত হওয়া উচিত পাত্র কিংবা পাত্রীর হেপাটাইটিস-বি আছে কি না। রক্ত পরীক্ষা করলেই জানা যাবে পাত্র-পাত্রী কেউ সিফিলিসের জীবাণু বহন করছে কি না। ভিডিআরএল পরীক্ষায় যৌন রোগ আছে কি না জানা যাবে।