বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পে নজরদারি বৃদ্ধি করা হবে: ইউজিসি

দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের অধিকাংশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি সন্তোষজনক নয়। যথাসময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে নজরদারি বৃদ্ধি করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)।

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামে ও একাডেমিক কার্যক্রম সম্প্রসারণ শীর্ষক প্রকল্পের আরডিপি পর্যালোচনা সংক্রান্ত বৃহস্পতিবার ইউজিসিতে অনুষ্ঠিত এক সভায় কমিশনের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর এ কথা বলেন।

সভায় প্রফেসর মুহাম্মদ আলমগীর বলেন, অধিকাংশ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শেষ না হওয়ার কারণে বাস্তবায়নে সময় ও ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে থেকে বেরিয়ে আসতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত সময়ে শুরু ও শেষ করা জরুরি।

ইউজিসি’র পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মোহাম্মদ মাকছুদুর রহমান ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় সভায় কুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মিহির রঞ্জন হালদার, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া, চিফ ইঞ্জিনিয়ার প্রকৌশলী এবিএম মামুনুর রশিদ, প্রকল্প পরিচালক ড. জুলফিকার হোসেন, ইউজিসি’র উপপরিচালক রোকসানা লায়লাসহ ইউজিসি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভায় খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামে ও একাডেমিক কার্যক্রম সম্প্রসারণ শীর্ষক প্রকল্পের বিস্তারিত দিক তুলে ধরেন প্রকল্প পরিচালক জুলফিকার হোসেন।

কুয়েটের অবকাঠামো সম্প্রসারণ, শিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নে ৮৩৮ কোটি টাকার প্রকল্পের বাস্তবায়ন ২০১৮ সালে শুরু হয়। এই প্রকল্পের মাধ্যমে নতুন একাডেমক ভবন, ছাত্র-ছাত্রীদের হল, শিক্ষক-কর্মকর্তাদের আবাসিক ভবন নির্মাণ করা হবে। এ্ছাড়া, এই প্রকল্পের মাধ্যমে কুয়েটে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুত লাইন স্থাপন ও গ্রিন বাউন্ডারি নির্মাণ ও আধুনিক বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হবে।