বিদেশ গমনে বাধ্যতামূলক করোনা সার্টিফিকেট

বেশ কিছু দেশে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া যাত্রীদের দেহে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এ অবস্থায় বাংলাদেশ থেকে বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে আগামী ২৩ জুলাই থেকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার সনদ নেওয়া বাধ্যতামূলক করেছে সরকার।

আজ শনিবার (১৮ জুলাই) বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, বৈশ্বিক মহামারী করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় গত ১২ জুলাই আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেশের তিন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রাম) এবং দেশি-বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলোতে পাঠানো হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়, করেনাকালে বিদেশে ভ্রমণে বাধ্যতামূলকভাগে করোনা পরীক্ষা করতে হবে। পরীক্ষার উদ্দেশ্যে ভ্রমণের ৭২ ঘণ্টা আগে নমুনা প্রদান করতে হবে এবং ২৪ ঘণ্টা আগে রিপোর্ট সংগ্রহ করতে হবে। করোনা পরীক্ষায় নিজ নিজ জেলায় সিভিল সার্জন অফিসে স্থাপিত বুথে নমুনা প্রদান করতে হবে। নমুনা জমা দেওয়ার পর থেকে ওই ব্যক্তিকে বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে থাকতে হবে। বিদেশগামীদের করোনা সনদের জন্য ল্যাবে গিয়ে নমুনা প্রদানের ক্ষেত্রে তিন হাজার ৫০০ টাকা এবং বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহের ক্ষেত্রে চার হাজার ৫০০ টাকা ফ্রি প্রদান করতে হবে।

বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষায় ১৬টি সরকারি হাসপাতাল বা প্রতিষ্ঠানের তালিকা দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালগুলো হলো, বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ, চট্টগ্রামের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিসেস, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ, ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টার, জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, জাতীয় প্রতিষেধক ও সামাজিক চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান, নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতাল, খুলনা মেডিক্যাল কলেজ, কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ, দিনাজপুরের এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ, রংপুর মেডিকেল কলেজ এবং সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ।