‘বিদেশে যেতে কেউ যেন অতিরিক্ত টাকা না দেন’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘যারা বিদেশে যাবেন, তারা যেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় বা সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন। বিদেশে যাওয়ার জন্য কেউ যেন অতিরিক্ত টাকা না দেন।’

সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি জানান, জনশক্তি রপ্তানির ক্ষেত্রে প্রতারণা ঠেকাতে প্রচার চালানোর নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক হয়। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি বৈঠকে অংশ নেন।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, শ্রমিকদের বিদেশে যেতে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার তাগিদ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে বিদেশে গেলে ঝুঁকি থাকে না। কারণ, ব্যাংক থেকে ঋণ নিলে বিদেশে যাওয়ার বিষয়ে সবকিছু যাচাই-বাছাই করেই তারা ঋণ দেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আমাদের দেশে কিন্তু ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল করা হচ্ছে। এগুলোর জন্য কর্মী পাওয়া যাচ্ছে না। এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে লাখ লাখ শ্রমিক লাগবে। কোথায় কী পরিমাণ শ্রমিক লাগবে, তা জেনে প্রশিক্ষণ নিয়ে দেশেই আয় করার সুযোগ তৈরি হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, যাতে এ বিষয়ে ব্যাপক প্রচার চালানো হয়।’