The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩

বিজয় দিবস উপলক্ষে ইবিতে কবিতা পাঠের আয়োজন

ইবি প্রতিনিধি: ‘বিজয় মানে উল্লাস, বিজয় মানে চেতনা, বিজয় মানে নতুন করে, নতুন প্রজন্মের সূচনা’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিজয় দিবসের কবিতা পাঠ।

শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়না চত্বরে সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘আবৃত্তি আবৃত্তি’ এই কবিতা পাঠের আয়োজন করে। এসময় সংগঠনটির সদস্যরা কবিতা পাঠ করে।

জান্নাতুল ফারজানার সঞ্চালনায় এবং সংগঠনের সভাপতি নাঈমা পারভীনের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি বায়োলজি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা জামাল, অধ্যাপক ড. খসরুল আলম, আবৃত্তি আবৃত্তি’র সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস মীরা, সাধারণ সম্পাদক হায়াতে জান্নাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ সহ প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী।

এসময় অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, কালচারলি ডেভলপ না হলে আলোকিত মানুষ হওয়া খুব কঠিন। মনকে বড় করাটা খুব কঠিন। কবিতা মানুষের মনকে অনেক প্রশস্ত করে। কবিতার একটি শব্দ পুরো কবিতাকে রিপ্রেজেন্ট করে। এই শব্দ গুলো কিন্তু কবিতার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি আশা করি আবৃত্তি আবৃত্তি সংগঠন তাদের যে মিশন রয়েছে সেগুলো কে নিয়ে আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, ‘আসুন আমরা শুদ্ধতার চর্চা করি’ এ উপজীব্যকে ধারণ করে ২০০৩ সালের ১৪ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে ‘আবৃত্তি, আবৃত্তি’ আত্মপ্রকাশ করে। সংগঠনটি বিভিন্ন দিবসকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে কবিতা পাঠের আয়োজন করে আসছে।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. বিজয় দিবস উপলক্ষে ইবিতে কবিতা পাঠের আয়োজন

বিজয় দিবস উপলক্ষে ইবিতে কবিতা পাঠের আয়োজন

ইবি প্রতিনিধি: 'বিজয় মানে উল্লাস, বিজয় মানে চেতনা, বিজয় মানে নতুন করে, নতুন প্রজন্মের সূচনা' এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিজয় দিবসের কবিতা পাঠ।

শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডায়না চত্বরে সাংস্কৃতিক সংগঠন 'আবৃত্তি আবৃত্তি' এই কবিতা পাঠের আয়োজন করে। এসময় সংগঠনটির সদস্যরা কবিতা পাঠ করে।

জান্নাতুল ফারজানার সঞ্চালনায় এবং সংগঠনের সভাপতি নাঈমা পারভীনের সভাপতিত্বে এতে উপস্থিত ছিলেন বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতি বায়োলজি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. মোঃ আবু হেনা মোস্তফা জামাল, অধ্যাপক ড. খসরুল আলম, আবৃত্তি আবৃত্তি'র সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌস মীরা, সাধারণ সম্পাদক হায়াতে জান্নাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিবৃন্দ সহ প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী।

এসময় অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, কালচারলি ডেভলপ না হলে আলোকিত মানুষ হওয়া খুব কঠিন। মনকে বড় করাটা খুব কঠিন। কবিতা মানুষের মনকে অনেক প্রশস্ত করে। কবিতার একটি শব্দ পুরো কবিতাকে রিপ্রেজেন্ট করে। এই শব্দ গুলো কিন্তু কবিতার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি আশা করি আবৃত্তি আবৃত্তি সংগঠন তাদের যে মিশন রয়েছে সেগুলো কে নিয়ে আরও সামনের দিকে এগিয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, 'আসুন আমরা শুদ্ধতার চর্চা করি' এ উপজীব্যকে ধারণ করে ২০০৩ সালের ১৪ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে ‘আবৃত্তি, আবৃত্তি’ আত্মপ্রকাশ করে। সংগঠনটি বিভিন্ন দিবসকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গনে কবিতা পাঠের আয়োজন করে আসছে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন