বাংলাদেশে ৪৩ হাজার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করল লাইকি

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত এই একাউন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসে নীতিমালা লংঘনের দা‌য়ে বাংলাদেশের ৪২ হাজার ৭৫১টি অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করেছে সিঙ্গাপুরভিত্তিক স্বল্পদৈর্ঘ্য ভিডিও তৈরি ও প্রকাশের প্ল্যাটফর্ম লাইকি।
চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত এই একাউন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে আপত্তিকর কন্টেন্ট মুছে ফেলা ও আপত্তিকর বিষয় ছড়িয়ে দেওয়া হয় এমন অ্যাকাউন্ট বন্ধে নিয়মিত কাজ চলছে বলেও জানিয়েছে লাইকি।
লাই‌কির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্যবহারকারীদের লাইকি কমিউনিটি নীতিমালা সম্পর্কে জানাতে কনটেন্ট নির্মাতা ও সেলিব্রেটিদের কাছে ভিডিও তৈরির এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে লাইকি যে ইতিবাচক মূল্যবোধ ছড়িয়ে দিচ্ছে। সে সম্পর্কে জানাতে লাইকি সম্প্রতি ‘#ভালোরজন্যজানো’ শীর্ষক একটি ক্যাম্পেইন চালু করেছে।

এ ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে অনেক জনপ্রিয় সেলিব্রেটি ও ইনফ্লুয়েন্সাররা নিরাপদ ও সুস্থ ধারার অনলাইন কমিউনিটি গড়ে তোলার জন্য কনটেন্ট পোস্ট করার নিয়ম ও সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের ওপর ভিডিও তৈরি করেন।
এদের মধ্যে ছিলেন মডেল ও অভিনেত্রী মুমতাহিনা চৌধুরী টয়া, ইউটিউবার তৌহিদ আফ্রিদি, অভিনেত্রী তানহা তাসনিয়া, টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী আয়মান সাদিক ও জেন্ডার ইক্যুয়েলিটি কনসালটেন্ট রিজভী আরেফিন।
গত কয়েক মাস ধরে লাইকি আপত্তিকর কন্টেন্ট ফিল্টার করতে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি এর ব্যবহারকারীদেরও সৃজনশীল ভিডিও তৈরি করতে উৎসাহিত করছে।
বাংলাদেশে লাইকির হেড অব অপারেশনস জয় বলেন, আমাদের নীতি ও নৈতিকতার মানদণ্ড থেকে বিচ্যুত হয় এমন কোনও কিছু লাইকিতে উৎসাহিত করা হয় না।
এ বছরের জানুয়ারি থেকে মে মাস পর্যন্ত নীতিমালা লঙঘনের কারণে মোট ৪২ হাজার ৭৫১টি অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং প্রতি মাসে প্রায় ৮৭ লাখ ভিডিও বিভিন্ন ধরনের পেনাল্টির সম্মুখীন হয়।
সুরক্ষা ও নিরাপত্তা নীতিলঙ্ঘন হয় এমন যে কোনও ক্ষেত্রে লাইকি সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে কাজ
করার মানসিকতা পোষণ করে।