বাংলাদেশে ওমিক্রন শনাক্ত

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। জাতীয় দলের দু’জন নারী ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষায় এটি শনাক্ত হয়।

জানা গেছে, সম্প্রতি বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব খেলতে জিম্বাবুয়েতে যায়। পরে আফ্রিকা মহাদেশে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রম শনাক্ত হওয়ায় গত ১ ডিসেম্বর তারা দেশে ফিরে আসে। দেশে ফেরা নারী ক্রিকেটারদের মধ্যে দুইজন করোনার এ নতুন ধরনে আক্রান্ত হয়েছে।

শনিবার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ওমিক্রনে আক্রান্ত হওয়া দুই নারী ক্রিকেটার সুস্থ আছে। তাদের মাঝে মাঝে পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। প্রটৌকল অনুযায়ী তাদের দুই সপ্তাহ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও জানান, দুই নারী ক্রিকেটারের সঙ্গে যারা ছিলেন এবং তাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের সবাইকে পরীক্ষার আওতায় আনা হয়েছে।

এর আগে জিম্বাবুয়ে থেকে ফিরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের দুই ক্রিকেটারের কোভিড পজিটিভ হওয়ার বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানান ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

তিনি বলেন, জিম্বাবুয়ে থেকে ফেরা নারী দলের সদস্যদের মধ্যে দুইজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদেরকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। তবে পুনরায় তাদের স্যাম্পল নেওয়া হয়েছে। সেই ফলের জন্য অপেক্ষা করছে বিসিবি চিকিৎসকরা। ওমিক্রন শঙ্কায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পুরো বিষয়টির দেখভাল করছে।

প্রসঙ্গত, ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ালিফাইং প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে গত ১ ডিসেম্বর দেশে ফেরে নারী ক্রিকেট দল। দেশে ফিরে হোটেল সোনাগাঁওতে ৫ দিনের কোয়ারেন্টাইনে প্রবেশ করেন তারা। প্রথম দফার কোভিড পরীক্ষায় কেউ পজিটিভ আসেননি। তবে দ্বিতীয় দফার পরীক্ষায় দুজনের কোভিড শনাক্ত হয়।

দক্ষিণ আফ্রিকায় ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্টের (B.1.1.529) কারণে আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শেষ না হতেই বাতিল করে। তাতে দল নির্বাচনে আইসিসি হেঁটেছে র‌্যাংকিংয়ের পথে। র‌্যাংকিং অনুযায়ী বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০২২ ওয়ানডে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে। তাতে প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেয়েছেন দেশের নারীরা।