বাংলাদেশি নাগরিকদের থাইল্যান্ড ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভয়ঙ্কর অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে বিশ্বজুড়ে। পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে তাই বাংলাদেশি নাগরিকদের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে থাইল্যান্ড।

সোমবার (১০ মে) ঢাকার থাই দূতাবাস থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ ছাড়াও নেপাল ও পাকিস্তানের জন্য একই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ নির্দেশে চলমান থাকবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, থাইল্যান্ড সরকারের গঠিত সিসিএসএ করোনা পরিস্থিতির কারণে দক্ষিণ এশিয়ার এই তিনটি দেশের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তবে এসব দেশ থেকে থাই নাগরিকরা চাইলে দেশে ফিরতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, বৈধ ভিসাধারীরা ১৫ মে থাইল্যান্ড যেতে পারবে। তারপরদিন ১৬ মে থেকে সিওইএস ইস্যু সংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। তবে কূটনৈতিক এবং জাতিসংঘের লাইসেজ-পাসার (ইউএনএলপি) ভিসাধারীরা থাইল্যান্ডে ভ্রমণ করতে পারবে।

এর আগে বাংলাদেশি নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। এর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি, সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়া। আজ সোমবার আরও দুটি দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত ও থাইল্যান্ড থেকে এ নিষেধাজ্ঞা এলো।