The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন: ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ

প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। জানা যায় ২৯ ডিসেম্বর এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ওইদিন সারা দেশের ৫টি পৌরসভা ও ৬৬টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত হওয়ায় পরীক্ষার তারিখ একদিন পিছিয়ে ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

সোমবার রাতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন গনমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন৷

তিনি জানান, ৩০ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ২৭ ডিসেম্বর পরীক্ষার প্রবেশপত্র বিতরণ করা হবে। আর ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে পঞ্চম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে হবে।

চারটি বিষয়ে ২৫ করে মোট ১০০ নম্বরে দুই ঘণ্টার বৃত্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। প্রতিটি বিষয় থেকে ১৫টি এমসিকিউ ও একটি রচনামূলক প্রশ্ন থাকবে। পরীক্ষার ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা।

করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হয়নি। চলতি বছরও সরকারের এ পরীক্ষা আয়োজনের পরিকল্পনা নেই। তাই প্রচলিত নিয়ম ও পদ্ধতিতে আলাদা বৃত্তি পরীক্ষা নিয়ে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

1
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. পরীক্ষা ও ফালাফল
  3. প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন: ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ

প্রাথমিকের বৃত্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন: ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ

প্রাথমিক বৃত্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। জানা যায় ২৯ ডিসেম্বর এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ওইদিন সারা দেশের ৫টি পৌরসভা ও ৬৬টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত হওয়ায় পরীক্ষার তারিখ একদিন পিছিয়ে ৩০ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

সোমবার রাতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন গনমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন৷

তিনি জানান, ৩০ ডিসেম্বর সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ২৭ ডিসেম্বর পরীক্ষার প্রবেশপত্র বিতরণ করা হবে। আর ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে পঞ্চম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে হবে।

চারটি বিষয়ে ২৫ করে মোট ১০০ নম্বরে দুই ঘণ্টার বৃত্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। প্রতিটি বিষয় থেকে ১৫টি এমসিকিউ ও একটি রচনামূলক প্রশ্ন থাকবে। পরীক্ষার ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা।

করোনা মহামারির কারণে গত দুই বছর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা হয়নি। চলতি বছরও সরকারের এ পরীক্ষা আয়োজনের পরিকল্পনা নেই। তাই প্রচলিত নিয়ম ও পদ্ধতিতে আলাদা বৃত্তি পরীক্ষা নিয়ে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন