প্রশ্নের পুরোনো ছবি ছড়িয়ে বিভ্রান্তির চেষ্টা হয়েছে: ডিজি

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০ এর প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম। তিনি জানান, এ পরীক্ষায় কোন ধরনের অনিয়মের সুযোগ নেই। গতকাল থেকে ফেসবুকে ছড়ানো প্রশ্নটি পূর্বের বছরের।

গতকাল থেকে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া প্রশ্নের বিষয়ে জানতে চাইলে শুক্রবার (২২ এপ্রিল) বেলা ১১টায় পরীক্ষা শুরুর পর দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, একটি কুচক্রি মহল প্রতিটি পরীক্ষার আগে এ ধরনের কার্যক্রম করে থাকে। বিভ্রান্তি ছড়ানোর উদ্দেশ্যে এরা এসব করে।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) রাত থেকে পরীক্ষাকে সামনে রেখে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকসহ অন্যান্য যোগাযোগমাধ্যমগুলেতে ‘প্রশ্নসহ উত্তরপত্র’ ও ‘সাজেশন’ বিক্রির পোস্ট দিয়ে প্রলোভন দেখানো হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষা শুরু সর্বশেষ কয়েক ঘণ্টা আগে নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নের একাধিক পাতার ছবি ফেসবুকে বিভিন্ন পেজ-গ্রুপে ছড়িয়ে দেয়া হয়।

মনসুরুল আলম বলেন, প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষার ৪৭০৯-নং সেটের যে প্রশ্নের ছবিটি ভাইরাল করা হচ্ছে সেটি পুরোনো। এ ধরনের সেট নম্বরে এবারে কোন প্রশ্ন হয়নি। সবাইকে সতর্ক থাকতে। যারা এগুলো করতেছে, তাদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। নিয়োগ পরীক্ষা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শুরু হয়েছে। আমি নিজেও একাধিক কেন্দ্র পরিদর্শনে যাচ্ছি।

প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষার প্রথম ধাপে শুক্রবার ঢাকাসহ ২২টি জেলার বিভিন্ন উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এরমধ্যে ১৪টি জেলার সব উপজেলা এবং ৮টি জেলার কয়েকটি উপজেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আবেদনকারীরা নিজ নিজ জেলায় বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।