প্রশ্নফাঁসেই স্থগিত হয়েছে দিনাজপুর বোর্ডের ৪ পরীক্ষা : শিক্ষাসচিব

প্রশ্নফাঁসের কারণেই দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীন চলমান এসএসসির চারটি তত্ত্বীয় বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষাসচিব মো. আবু বকর ছিদ্দীক।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের আয়োজনে ‘শিক্ষাক্ষেত্রে শুদ্ধাচার চর্চার প্রয়োজনীয়তা’ শীর্ষক কর্মশালা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রশ্নফাঁস হয়েছে। এ কারণেই পরীক্ষা স্থগিত হয়েছে। আগের প্রশ্নফাঁস ও এখনকার প্রশ্নফাঁসের পার্থক্য আছে। এবারের প্রশ্নফাঁস ফেসবুক বা গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েনি। তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এরইমধ্যে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

শিক্ষাসচিব বলেন, প্রশ্নফাঁসের বিষয়টি ভালোভাবে দেখার সুযোগ নেই। কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারিতে যে প্রশ্নফাঁস হলো, তা থানার লকার থেকে আনার সময় ফাঁস হয়েছে। মূলত সেখানকার কেন্দ্র সচিব এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। তিনি বিজ্ঞান বিভাগের বাড়তি কিছু প্রশ্ন নিয়ে নেন। যা পরে আমাদের নজরে আসে। তবে প্রশ্নগুলো এখনো ছড়িয়ে পড়েনি। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে নাকি ব্যক্তিগত কারও সহায়তার উদ্দেশে নেওয়া হয়েছে তা তদন্তে জানা যাবে।

এর আগে অনুষ্ঠানে ‘শিক্ষাক্ষেত্রে শুদ্ধাচার চর্চার প্রয়োজনীয়তা’ বিষয়ক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মো. বেলায়েত হোসেন তালুকদার।

ঢাকা রেসিডেসিয়াল মডেল কলেজের অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাজী শামীম ফরহাদসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, অভিভাবকসহ বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার এতে অংশ নেন।

দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনে চলমান এসএসসির গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, কৃষিবিজ্ঞান এবং রসায়ন বিষয়ের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।