পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান রেখে চূড়ান্ত সুপারিশের সিদ্ধান্ত হয়নি

তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির দ্বিতীয় ধাপ ও বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তিতে প্রাথমিক সুপারিশপ্রাপ্তরা পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান রেখে চূড়ান্ত সুপারিশপত্র দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন। তবে এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

এনটিআরসিএ বলছে, পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান রেখে চূড়ান্ত সুপারিশপত্র দেওয়ার এখতিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের। এই ক্ষমতা তাদের হাতে নেই। এনটিআরসিএ শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠিয়ে অনুরোধ করতে পারে। তবে সিদ্ধান্ত নেবে মন্ত্রণালয়।

এনটিআরসিএ’র কর্মকর্তারা জানান, বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি এবং তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির দ্বিতীয় ধাপে সুপারিশপ্রাপ্তদের অনেকেরই যোগ্যতা নেই। তবুও তারা সুপারিশ পেয়েছেন। এনটিআরসিএ’র যে সফটওয়্যার সেখানে এটি ধরার সুযোগ নেই। সেজন্য তারা প্রার্থীদের নিবন্ধন সনদ এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ জমা দিতে বলেছেন। এটি যাচাই-বাছাই করা হবে। এরপর সুপারিশপ্রাপ্তদের তালিকা প্রস্তুত করা হবে

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এনটিআরসিএ সচিব মো. ওবায়দুর রহমান বলেন, প্রার্থীদের পুলিশ ভেরিফিকেশন চলমান রেখে যোগদানের ব্যাপারে কোনো আলোচনা হয়নি। এটি নির্ভর করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওপর। মন্ত্রণালয় চাইলে ভেরিফিকেশন চলমান রেখে চূড়ান্ত সুপারিশপত্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

এদিকে এনটিআরসিএ’র একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রের তথ্য অনুযায়ী, বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি এবং তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তির দ্বিতীয় ধাপে সুপারিশপ্রাপ্তদের ভেরিফিকেশন চলমান রেখে যোগদানের বিষয়ে এখনই মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিতে চায় না এনটিআরসিএ। আগে প্রাথমিক সুপারিশপ্রাপ্তদের সনদ যাচাই করবেন তারা। এরপর মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হতে পারে। তবে এটি সময় সাপেক্ষ বলেও জানান কর্মকর্তারা।

এ প্রসঙ্গে এনটিআরসিএ সচিব বলেন, প্রাথমিক সুপারিশপ্রাপ্তদের কাগজপত্র জমা নেওয়া হচ্ছে। এটি যাচাই-বাছাই শেষে তালিকা চূড়ান্ত করা হবে। এরপর এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান মহোদয় চাইলে ভেরিফিকেশন চলমান রেখে যোগদানের জন্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠাতে পারেন। তবে এখনো এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।