The Rising Campus
News Media
শুক্রবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২৩

নুডলস খাওয়া নিয়ে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষ, নিহত ১

ভোলায় বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা উপলক্ষে নুডুলস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে হৃদয় নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের চেউয়াখালি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হৃদয়

সংঘর্ষে দুই গ্রুপের আহত আটজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে আর্জেন্টিনার খেলার দিন সমর্থকরা নুডলস খাওয়ার আয়োজন করে। এ নিয়ে দুই সমর্থক আকবর ও আশিকের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তাদের অনুসারী দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি হয়।

তারই জের ধরে মঙ্গলবার রাতে সংঘঠিত হয়ে আবারও দুই গ্রুপের সমর্থকরা দেশি অস্ত্র নিয়ে মারামারি শুরু করে। এ সময় অস্ত্রের আঘাতে জখম হন ২০ বছর বয়সী হৃদয় সহ আরো আট জন। গুরুতর আহম হৃদয়কে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার মৃত বলে জানান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভোলা সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আনিস উদ্দিন। তিনি জানান, ফুটবল খেলা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে একজন মারা গেছেন। উভয় পক্ষের আটজন ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আমরা ময়নাতদন্ত শেষে অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভোলা সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নাইমুল হাসনাত বলেন, দেশি অস্ত্রে জখম হয়ে আট জন ভর্তি আছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। একজন মারা গেছেন।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. খেলাধুলা
  3. নুডলস খাওয়া নিয়ে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষ, নিহত ১

নুডলস খাওয়া নিয়ে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের সংঘর্ষ, নিহত ১

ভোলায় বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা উপলক্ষে নুডুলস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে হৃদয় নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের চেউয়াখালি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত হৃদয়

সংঘর্ষে দুই গ্রুপের আহত আটজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে আর্জেন্টিনার খেলার দিন সমর্থকরা নুডলস খাওয়ার আয়োজন করে। এ নিয়ে দুই সমর্থক আকবর ও আশিকের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তাদের অনুসারী দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারি হয়।

তারই জের ধরে মঙ্গলবার রাতে সংঘঠিত হয়ে আবারও দুই গ্রুপের সমর্থকরা দেশি অস্ত্র নিয়ে মারামারি শুরু করে। এ সময় অস্ত্রের আঘাতে জখম হন ২০ বছর বয়সী হৃদয় সহ আরো আট জন। গুরুতর আহম হৃদয়কে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার মৃত বলে জানান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভোলা সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আনিস উদ্দিন। তিনি জানান, ফুটবল খেলা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে একজন মারা গেছেন। উভয় পক্ষের আটজন ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আমরা ময়নাতদন্ত শেষে অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভোলা সদর হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. নাইমুল হাসনাত বলেন, দেশি অস্ত্রে জখম হয়ে আট জন ভর্তি আছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। একজন মারা গেছেন।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন